1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মেঘনা নদীতে কর্ণফুলী-৩ লঞ্চে আগুন, আতঙ্কিত যাত্রীরা ভোলায় পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু ফকিরহাটের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে স্বপন দাশের প্রচার শুরু চরফ্যাশনে ভিকটিমকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান এর বিরুদ্ধে আদালতের আদেশ মানতে গড়িমসি করছেন খুলনা বিভাগীয় পরিবার পরিকল্পনা পরিচালক রবিউল আলম বাইউস্টে নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত Sustainability with Profitability is Possible-Rezaul Karim Chowdhury লালমোহনে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মারপিট আহত ১ ২০২৪-২৫ বাজেটে সব ধরনের তামাকপণ্যের কর ও মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন মোহনপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন

বন্দর রুপালী,আমিন আবাসিকে বেপরোয়া কিশোর গ্যাং

সহকারী সম্পাদক
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৮৬ বার পঠিত
স্টাফ রিপোর্টারঃ
নারায়ণগঞ্জর বন্দরের রুপালি, আমিন আবাসিক এলাকায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে  কিশোর গ্যাং।  কিশোর গ্যাংয়ের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ দিয়েও মিলছে না সমাধান। সর্বশেষ বন্দর রুপালি আবাসিক এলাকায় আজহারুল ইসলামের ছেলে ( নিহত) মেরাজুল ও জাবেদ মিয়ার ছেলে (আহত) আল আমিনের ঘটনায় ২ আসামি গ্রেফতার হলেও মূল হোতারা ধরাছোঁয়ার বাইরে।
তথ্য সূত্রে জানা যায় খান মাসুদের নেতৃত্বে দুই রাজু’র  সাঙ্গ পাঙ্গু নিয়ে একদল কিশোর গ্যাং দীর্ঘদিন যাবত রুপালি,  আমিন আবাসিক  এলাকা, বাবু পাড়া, মেরিন, সালেহ নগর, বিভিন্ন স্থানে ইভটিজিং চাঁদাবাজি,করে আর্সছে ।
 রুপালি আবাসিক  এলাকার মাদ্রাসা গলির শুভ, সজিব, নিরব, হিমেলের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পরেছে।  নাম বলতে অনিচ্ছুক এক মুদি দোকানদার বলেন আমার দোকানে এসে দীর্ঘদিন যাবত চাঁদাদাবি করেন মাদক ব্যবসায়ী কিশোর গ্যাং লিডার শুভ চাঁদা দিতে অপারগতা জানালে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন চাঁদা না দিলে দেখে নেওয়ার হুমকি প্রদান করেন। তার ২ দিন পরেই দিনে দুপুরে আমার মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে ৪ হাজার টাকা বিনিময়ে মোবাইল ফেরত পেলেও শংঙ্কায় বসবাস করছি।
এলাকাবাসী আরো বলেন রুপালি আবাসিক এলাকার দেহ ব্যবসায়ী শাহিদা আক্তার তার ছেলে কিশোর গ্যাংয়ের লিডার শুভ, সজিব, নিরব, হিমেল এই ছেলে গুলো রুপালি আবাসিক এলাকায় মোবাইল ছিনতাই,  ইভটিজিং চাঁদাবাজী, লুন্ঠন,  মাদক ব্যবসা করে আর্সছে। তাদের বাঁধা দেওয়ার কেউ নেই। পঞ্চায়েত কমিটি নামমাত্র এই বিষয়ে তাদের কোন তৎপরতা নেই।
এ বিষয়ে রুপালি পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি দুলালকে মুঠোফোনে  কল দিলে তিনি বলেন রুপালি আবাসিক এলাকা শান্তি প্রিয় এলাকা তবে কিছু মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোর গ্যাংদের কারণে আজ আমাদের সমাজটা প্রশ্নবৃদ্ধ, আমি আশা করি এমপি মহোদয় সেলিম ওসমান যদি সুদৃষ্টি রাখেন তাহলেই মাদক সন্ত্রাস মুক্ত সুন্দর রুপালী আবাসিক এলাকা হবে ইনশাআল্লাহ।
এলাকাবাসী বলেন বন্দর আইনশৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি ঘটেছে তবে পুলিশ প্রশাসন চাইলে কিশোর গ্যাং মাদক চাঁদাবাজ মুক্ত নগরী হবে রুপালি আবাসিক এলাকা।
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা