1. admin@upokulbarta.news : admin :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শেখ হাসিনা’র জন্য ঘষিয়াখালী ক্যানেল সুন্দরভাবে চলছে- সিটি মেয়র আ. খালেক দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না- মেয়র শেখ আ. রহমান ভোলায় রওশন আরা ও রাব্বী হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা কালীপদ রায়কে গার্ড অব অনার বন্দরে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে প্যালিয়েটিভ কেয়ার বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ‘মিডওয়াইফ পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা’ প্রকল্পের সমাপনী ও লার্নিং শেয়ারিং কর্মশালা সিদ্ধিরগঞ্জে তাঁতখানা এ্যাথলেটিক্স ক্লাবের উদ্যোগে, শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সিজন (১) ২০২৪ উদ্বোধন হয়েছে বাইউস্ট ট্রাস মাস্টার অনুষ্ঠিত পথ হারিয়ে ৯৯৯ এ ফোন, ৩১ পর্যটককে উদ্ধার করল পুলিশ আজ পবিত্র শবেবরাত

টাঙ্গাইলে যুবকদের সাথে ডরপ’র তামাক কর ও মূল্য বৃদ্ধি বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন সভা

সহকারী সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৭৭ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন অব দি রুরাল পুয়র-ডরপ’র উদ্যোগে যুব চ্যাম্পিয়নদের সাথে তামাক কর ও মূল্য বৃদ্ধি বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনব্যাপী গতকাল সোমবার টাঙ্গাইল সদর উপজেলা গালা ইউনিয়নের শিবপুর বাজারে মানবকল্যান যুব সংসদ এর হল রুমে ওরিয়েন্টেশন সভার আয়োজন করা হয়।

ওরিয়েন্টেশন সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মানবকল্যান যুব সংসদের সভাপতি মো. ইব্রাহিম হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন মানবকল্যান যুব সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আকবর হোসেন। এতে টাঙ্গাইল জেলা যুবক ফোরামের সদস্য মো. আরিফ হোসেন এর সভাপতিত্বে ও ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন অব দি রুরাল পুয়র-ডরপ এর ফেসিলিটিটর মো. গুলজার হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন যুবক ফোরামের সদস্য মো. রাকির হোসেন, দিপু সাহা, রুদ্র ইসলাম প্রমুখ। এসময় মানবকল্যান যুব সংসদের সদস্য ও যুবক ফোরামের সদস্য বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে মো. আরিফ হোসেন বলেন, কর প্রস্তাবসহ সকল ধোঁয়াবিহীন তামাকপণ্য উৎপাদনকারীকে করজালের আওতায় নিয়ে আসা গেলে এবং সকল তামাকপণ্য অভিন্ন পরিমাণে (শলাকা সংখ্যা এবং ওজন) প্যাকেট/কৌটায় বাজারজাত করা সম্ভব হলে জনস্বাস্থ্যে বিরাট একটি ইতিবাচক পরিবর্তন দেখা যাবে। তামাক জনিত রোগে অক্রান্ত হওয়া রোগী এবং নতুন ধূমপায়ীর সংখ্যাও কমে আসবে। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. ইব্রাহিম হোসেন বলেন, উল্লেখিত কর প্রস্তাবসহ একটি সহজ এবং কার্যকর তামাক কর নীতিমালা প্রণয়ন ও বাস্তবায়িত হলে সরকারের রাজস্ব আয় প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা বৃদ্ধি পাবে এবং ধূমপানকারীর সংখ্যা কমে আসবে। তিনি আরো বলেন, আজকের যুব সমাজ তাদের ইচ্ছাশক্তির বলে নানা ধরনের ধরনের ইতিবাচক কাজ করে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় পরিমণ্ডলে অবদান রাখছে। আমি আশা করি আজকের আলোচনা সভায় উপস্থিত যুবরা তামাক বিরোধী আন্দোলনকে আরো বেগবান করবে এবং তামাক কর ও মূল্য বৃদ্ধির বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে জাতীয় নীতি-নির্ধারকদের কাছে তাদের দাবি সমূহ তুলে ধরবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা