1. admin@upokulbarta.news : admin :
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৪৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভাসুরের পরকীয়ায় জড়িয়ে স্বামীকে তালাক Minimum Meeting Courtesy: Presenting Your Organization বোরহানউদ্দিনে বাল্য বিয়ের অপরাধে অর্থদন্ড সভা-সেমিনারে ন্যূনতম সৌজন্য: সংস্থাকে কিভাবে তুলে ধরবেন? নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে কোস্ট ফাউন্ডেশন এবং ইউএনএইচসিআর এর উদ্যোগ জাতীয় অর্থনীতি ও মানসম্পন্ন শিক্ষায় ভূমিকা রাখবে পায়রা বন্দর; চেয়ারম্যান এখনো নেভেনি ইপিজেডে ভিআইপির আগুন, ক্ষতি ১৫০ কোটি টাকা ফকিরহাট কাকডাঙ্গা ১২তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন মোহনপুরে প্রাইভেটকারে ফেনসিডিলসহ ব্যবসায়ী গ্রেপ্তর পরকিয়া প্রেমিকের টানে প্রবাসে স্বামীর সর্বস্ব লুটে প্রেমিকের সাথে দেশে এসে স্বামীসহ ৭ জনের নামে মিথ্যা মামলা

বরিশালে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন করছে কোস্ট ফাউন্ডেশন

কোস্ট ফাউন্ডেশন, বরিশালঃ
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৮ মার্চ, ২০২২
  • ১৭৯ বার পঠিত

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

“টেকসই আগামীর জন্য জেন্ডার সমতাই আজ অগ্রগণ্য” এ শ্লোগান নিয়ে বরিশালে জার্মান ফেডারেল মিনিস্ট্রি ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট (বিএমজেড) এবং যুক্তরাজ্য সরকারের ফরেন,কমনওয়েলথ এন্ড ডেভেলপমেন্ট অফিস (এফসিডিও)-এর পক্ষে রুল অব ল প্রোগ্রাম, জিআইজেড বাংলাদেশ এর কারিগরি সহযোগিতায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন করেছে কোস্ট ফাউন্ডেশন।

দিনব্যাপি কমূসূচীতে কোস্ট ফাউন্ডেশন বরিশাল সেন্টারে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় এর পরে একটি র‌্যালি নিয়ে বরিশাল কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পৌঁছায় সংস্থার কর্মীগণ ও সুবিধাভ‚গীগণ, এরপওে শিশুদের জন্য ছবি আঁকা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শহিদ মিনারে বক্তব্য প্রদানকালে মো: জহিরুল ইসলাম বলেন, কোস্ট ফাউন্ডেশন নারী ও পুরুষের সমতায়নে বিশ্বাস করে এবং কর্মক্ষেত্রে নারীদের সম অধিকার রক্ষায় অঙ্গীকারাবদ্ধ। কোস্ট বিশ্বাস করে সমান সুযোগ পেলে একজন নারী ও পুরুষ সমান কাজ করতে পারে।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস (আদি নাম আন্তর্জাতিক শ্রমজীবী নারী দিবস) প্রতি বছর ৮ মার্চ পালিত হয়। সারা বিশ্বব্যাপী নারীরা একটি প্রধান উপলক্ষ্য হিসেবে এই দিবস উদযাপন করে থাকেন। বিশ্বের এক এক প্রান্তে নারী দিবস উদযাপনের প্রধান লক্ষ্য এক এক রকম। কোথাও নারীর প্রতি সাধারণ সম্মান ও শ্রদ্ধা উদযাপনের মুখ্য বিষয় হয়, আবার কোথাও নারীদের আর্থিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানটি বেশি গুরুত্ব পায়।

ারী দিবসের ইতিহাস: এই দিবসটি উদযাপনের পেছনে রয়েছে নারী শ্রমিকের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের ইতিহাস। ১৮৫৭ সালে মজুরি বৈষম্য, কর্মঘণ্টা নির্দিষ্ট করা, কাজের অমানবিক পরিবেশের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের রাস্তায়় নেমেছিলেন সুতা কারখানার নারী শ্রমিকেরা। সেই মিছিলে চলে সরকারি লেঠেল বাহিনীর দমনপীড়ন। ১৯০৮ সালে নিউইয়র্কের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট নারী সংগঠনের পক্ষ থেকে আয়োজিত নারী সমাবেশে জার্মান সমাজতান্ত্রিক নেত্রী ক্লারা জেটকিনের নেতৃত্বে সর্ব প্রথম আন্তর্জাতিক নারী সম্মেলন হল। ক্লারা ছিলেন জার্মান রাজনীতিবিদ, জার্মান কমিউনিস্ট পার্টির স্থপতিদের একজন। এরপর ১৯১০ সালে ডেনমার্কের কোপেনহাগেনে অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক নারী সম্মেলন। ১৭টি দেশ থেকে ১০০ জন নারী প্রতিনিধি এতে যোগ দিয়েছিলেন।

এ সম্মেলনে ক্লারা প্রতি বৎসর ৮ মার্চকে আন্তর্জাতিক নারী দিবস হিসেবে পালন করার প্রস্তাব দেন। সিদ্ধান্ত হয়, ১৯১১ সালে থেকে নারীদের সম অধিকার দিবস হিসেবে দিনটি পালিত হবে। দিবসটি পালনে এগিয়ে আসে বিভিন্ন দেশের সমাজতন্ত্রীরা। ১৯১৪ সালে থেকে বেশ কয়েকটি দেশে ৮ মার্চ পালিত হতে আসছে। অতঃপর ১৯৭৫ সালে ৮ মার্চকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। দিবসটি পালনের জন্য বিভিন্ন রাষ্ট্রকে আহ্বান জানায় জাতিসংঘ। এর পর থেকে সারা পৃথিবী জুড়েই পালিত হচ্ছে দিনটি নারীর সমঅধিকার আদায়ের প্রত্যয় পুনর্ব্যক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিধি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা মহিলা সমিতির সভাপতি বেগম সাজেদা, সভাপতিত্ব করেন সিভিল সোসাইটি প্রতিনিধ ও সিএসওবিডি’র বরিশাল বিভাগীয় সভাপতি আনওয়ার জাহিদ, আরো উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন এনজিও’র প্রতিনিধি ও সুবিধাভোগীগন।

নারী দিবস আয়োজনে: কোস্ট ফাউন্ডেশন, কমিউনিটিতে ন্যায়বিচারে প্রবেশাধিকার। কারিগরি সহযোগিতায়: জার্মান ফেডারেল মিনিস্ট্রি ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট (বিএমজেড) এবং যুক্তরাজ্য সরকারের ফরেন,কমনওয়েলথ এন্ড ডেভেলপমেন্ট অফিস (এফসিডিও)-এর পক্ষে রুল অব ল প্রোগ্রাম, জিআইজেড বাংলাদেশ।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা