1. admin@upokulbarta.news : admin :
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা কালীপদ রায়কে গার্ড অব অনার বন্দরে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে প্যালিয়েটিভ কেয়ার বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ‘মিডওয়াইফ পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা’ প্রকল্পের সমাপনী ও লার্নিং শেয়ারিং কর্মশালা সিদ্ধিরগঞ্জে তাঁতখানা এ্যাথলেটিক্স ক্লাবের উদ্যোগে, শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সিজন (১) ২০২৪ উদ্বোধন হয়েছে বাইউস্ট ট্রাস মাস্টার অনুষ্ঠিত পথ হারিয়ে ৯৯৯ এ ফোন, ৩১ পর্যটককে উদ্ধার করল পুলিশ আজ পবিত্র শবেবরাত শবে বরাতের আমল ও ফজিলত পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার প্রত্যয় সালাম হাওলাদারের পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন উঠান বৈঠক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন যুব নেতা শাকিল

ভোলার বোরহানউদ্দিনে জালদলিলে জমি দখলের চেষ্টা

আশিকুর রহমান শান্ত
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ১১২ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক॥

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ইউনিয়নে জাল দলিলের মাধ্যমে একটি এতিম পরিবারের দীর্ঘ বছরের ভোগ দখলীয় জমি ও বসত বাড়ি দখলের চেষ্টায় স্বশস্ত্র ক্যাডাররা তান্ডবলীলা চালিয়েছে। অস্ত্রধারী দুর্বৃত্তরা বাড়ীর মালিক আরজু বেগমকে ভিটে ছাড়া করার অশুভ চেষ্টায় তার উপর নির্মমভাবে হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। প্রকাশ্যদিবালোকে সন্ত্রাসীরা এই নারীকে বেধড়ক লাঠিপেটার পর উল্লাস করেছে। বিগত ২৬ জানুয়ারী শুক্রবার বিকেল ৪টায় উপজেলার টবগী ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডস্থ্য ভিক্টিমের বসত বাড়ীতে এঘটনা ঘটে। পৈচাশিক এঘটনার পর থেকে অদ্যবদি ক্যাডারদের ভয়ে বাড়ীর মালিক আরজু বেগম নিজ ঘরে অবরুদ্ধ অবস্থায় থাকতে হচ্ছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।
তিনি জানান,তার স্বামী মৃত হালিম চৌধুরী ওরফে মো: জসিম বোরহানউদ্দিন থানাধীন টবগী মৌজার এস.এ ৮৮ নং খতিয়ানে পিতা আব্দুর রহিমের ওয়ারিশ সূত্রে মালিক দখলকার বিদ্যমান ছিলেন। তার স্বামীর নামে বি.এস নয়শত একান্ন এবং নয়শত বায়ান্ন নং খতিয়ানে সঠিক ও শুদ্ধভাবে রেকর্ড অংকিত হয়। স্বামীর রেখে যাওয়া ওই জমিতে স্থাপিত ঘরে আরজু বেগম তিন পুত্র ও এক কন্যা সন্তান নিয়ে বসবাস করছিলেন। হঠাৎ তিনি জানতে পান, তার স্বামীর দশ শতাংশ জমি জনৈকা হনুফা বেগমের নামে ভূয়া খতিয়ান দেখিয়ে এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মালেকের প্রবাসী পুত্র জুয়েলের নামে বিগত ২০২৩ ইং সালের ১১ এপ্রিল স্থানীয় অপর বাসিন্দা রতন হাওলাদার কর্তৃক একটি রেজিষ্ট্রি হেবা দলিল করা হয়েছে। যার নম্বর-২১৬৫। বিগত ৩১ জানুয়ারী/২০২৪ ইং তারিখে ওই দলিলের সহি-মোহর উঠিয়ে পর্যালোচনায় দেখা যায় উক্ত দলিলটি ভূয়া ও জাল-জালিয়াতিভাবে করা হয়েছে।
এ-রিমধ্যে ওই ভূয়া দলিলের সূত্রধরে দলিল গ্রহীতা প্রবাসী জুয়েলের বাবা আব্দুল মালেকের নেতৃত্বে ইউনিয়ন যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক-ইউসুফ ও তার সঙ্গীয় মনির,সালাউদ্দিন,জসিম ও সেলিমসহ একদল ভাড়াটিয়া ক্যাডার ভিক্টিমের জমি ও বসত বাড়ী দখলে নিতে সন্ত্রালীলা শুরু করেছে। তাদের এসব কাজে বাধা দিলে ক্যাডাররা জমির মালিক আরজু বেগমকে বিবস্ত্র করে পিটিয়ে মারাত্নকভাবে আহত করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এসকল সন্ত্রাসীরা ক্ষমতাসীনদলের নাম ভাঙ্গিয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব চালাচ্ছে। এরা কারন-অকারনে সাধারণ গ্রামবাসীর উপর নির্যাতনের ষ্টীমরোলার চালিয়ে এক নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে বলে বিস্তর অভিযোগের অন্ত:নেই।চাঁদাবাজি,ভূমিদস্যুবৃত্তি,মাদক ও জিন ব্যবসা এদের নিত্যদিনের কর্ম বলে স্থানীয়রা অভিযোগ তুলেছেন।এদিকে সন্ত্রাসী হামলা ও জাল-জালিয়াতি করে দলিল সৃজনের ঘটনায় ভিক্টিম আরজু বেগম বাদি হয়ে আব্দুল মালেক,মোস্তফা,রতন ও নাছিমুল হক নামের চার ব্যাক্তিকে আসামী করে ১১ফেব্রুয়ারী বোরহানউদ্দিন সিনিয়র জুডিশিয়াল বিচারিক হাকিমের আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নাম্বার এমপি-৩৪/২৪। বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করতে ভোলার সিআইডিকে নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার বাদি আরজু বেগম গণমাধ্যমকে জানান,সন্ত্রাসীদের ভয়ে তিনি পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এখন চরম আতঙ্ক, উদ্বেগ আর উৎকন্ঠার মধ্যে রয়েছেন। এবিষয়ে জানতে কথা হয় অভিযুক্ত জালদলিল গ্রহীতার বাবা আব্দুল মালেকের সাথে। তিনি উক্ত দলিলটি জাল নয় বলে দাবী করেন। বলেন, কাগজপত্র সঠিক ছিলো বলেই আমার ছেলের নামে দলিল করেছি। অভিযুক্ত জালদলিল গ্রহীতা জুয়েল বিদেশে অবস্থান করায় তার সাথে যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা