1. admin@upokulbarta.news : admin :
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন শিক্ষার মানোন্নয়ন করতে চান চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ সেলিম নারীর গুণ – আঃ সামাদ দৌলতখানে যুব রেড ক্রিসেন্টে দলনেতা মাশরাফি উপ-নেতা ইমতিয়াজ ও রহিমা মোংলায় ৫ শতাধিক চক্ষু রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান শরণখোলা ও মোরেলগঞ্জে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের জনসচেতনতা ও বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান দখল-দূষণে অস্তিত্ব সংকটে ঠাকুরানী খাল পরিচ্ছন্ন অভিযানে পৌর মেয়র আ. রহমান জনপ্রিয়তার শীর্ষে ও প্রচারণায় এগিয়ে সাবেক মেয়র ডাঃ শফিক ফকিরহাটে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত ভোলায় ৬ বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতালে সিলগালা আমি আপনাদের ভালোবাসার কাছে ঋণী- কেসিসি মেয়র আ: খালেক

ভোলা বিআরটিএতে দালাল নাজুর দৌরাত্ম্য, জিম্মি যানবাহন মালিক-চালকরা

উপকূল বার্তা ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ২১ বার পঠিত

ভোলা বিআরটিএ অফিসে প্রতিদিন গড়ে দেড়শ’ মানুষ বিভিন্ন যানবাহনের লাইসেন্স ও রেজিস্ট্রেশনের জন্য আবেদন করতে আসেন। অফিসে ঢুকার সাথে সাথে দালাল নাজু তার গেটিস শিপনের খপ্পরে পড়েন গ্রাহকরা। অভিযোগ উঠেছে, গ্রাহকদের কাছ থেকে নির্ধারিত ফির চেয়ে অতিরিক্ত দুই থেকে পাঁচ হাজার টাকা বেশি নিচ্ছেন। এরপর নাজু দালাল তার গেটিস শিপনসহ কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে কর্মকর্তাদের সিল ব্যবহার করেন।আবেদনকারীদের অভিযোগ, আবেদনপত্র দালাল নাজু ও গেটিস শিপনের মাধ্যমে অতিরিক্ত টাকা দিয়ে আবেদনপত্র জমা দিলে ভোগতে হয় বছের পর বছর। নির্ধারিত সময়ে পাওয়া যায়না গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ও লাইসেন্স। এমনকি লিখিত পরীক্ষায় পাস করানোর দায়িত্বও নেয় নাজু দালাল ও গেটিস শিপন ।এ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যারা নিজেরা আবেদনপত্র ঠিকমতো পূরণ করতে পারেন না, আমি শুধু তাদের সহযোগিতা করি। এতে খুশি হয়ে তারা আমাকে কিছু দিলে তা নেই। আমি তো কারো কাছে জোর করে কিছু নেই না।’ এ বিষয়ে বিআরটিএ ভোলা অফিসের প্রধান মাহাবুবুর রহমানের কাছে জানার জন্য মুঠোফোনে ফোন দিলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা