1. admin@upokulbarta.news : admin :
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১১:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে ইভটিজিং বন্ধ করবেন সালেম হাওলাদার ভোলায় সাংবাদিক মহিউদ্দিনের উপর হামলায় গণমাধ্যমে নিন্দা-প্রতিবাদের ঝড় যৌতুকের দাবিতে পুত্রবধূকে মারধরের অভিযোগ শশুর শাশুড়ির বিরুদ্ধে মাছ শিকারে ২ মাসের নিষেধাজ্ঞা শুরু মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে গুরু -আঃ সামাদ ভোলার লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন শিক্ষার মানোন্নয়ন করতে চান চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ সেলিম নারীর গুণ – আঃ সামাদ দৌলতখানে যুব রেড ক্রিসেন্টে দলনেতা মাশরাফি উপ-নেতা ইমতিয়াজ ও রহিমা মোংলায় ৫ শতাধিক চক্ষু রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

ভোলার হাটখোলা মসজিদের পুকুর থেকে ভাসমান লাশ উদ্ধার

সহকারী সম্পাদক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৯ মার্চ, ২০২৩
  • ৯৬ বার পঠিত

আশিকুর রহমান শান্তঃ

ভোলা পৌরসভার হাটখোলা জামে মসজিদের পুকুর থেকে রফিকুল ইসলাম কডু (৪০) নামের এক ব্যক্তির ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছেন ভোলা সদর মডেল থানা পুলিশ।

শনিবার (১৮ মার্চ) এশার নামাজের পর মুসল্লীরা মসজিদের পুকুরের ঘাটলায় গেলে এক ব্যক্তির ভাসমান লাশ দেখতে পায়। ভাসমান লাশ দেখতে পেয়ে মুসল্লিরা তাৎক্ষণিক এলাকার লোকজনকে ডাক দিলে তারা ঘটনা স্থলে ছুটে আসেন। সেখানে অন্যান্যদের ভিতরে রফিকুল ইসলাম কডুর ভাতিজা ছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ পুকুর থেকে উদ্ধার করেন। লাশ উদ্ধার করার পর রফিকুল ইসলাম এর ভাই অসীম লাশ দেখে তার ভাইয়ের লাশ বলে নিশ্চিত করেন।

উদ্ধার হওয়া ভাসমান লাশ এর ব্যক্তি ভোলা পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের কবির কসাই এর ৫ ছেলে ও ১ মেয়ের মধ্যে ছোট ছেলে। তিনি পেশায় একজন কসাই পোলা কিচেন মার্কেটে কসাই হিসেবে কাজ করতেন।

এ বিষয়ে নিহতের ভাই ওয়াসিম কসাই সাংবাদিকদের জানান, গতকাল রাত থেকে আমার ভাই নিখোঁজ রয়েছে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর ও তাকে পাওয়া যায়নি। তারপর আজকে এশারের নামাজের পর শুনতে পান এখানে একটি লাশ বেঁচে আছে। সেখানে এসে উদ্ধার করার পর দেখতে পান তার ভাইয়ের লাশ। তবে তার ভাইয়ের সাথে কারো সাথে কোন রকমের শত্রুতা নেই বলে নিশ্চিত করে। এবং রফিকুল ইসলাম মিরগি রোগে আক্রান্ত বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে ভোলা সদর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ শাহিন ফকির জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি টিম গিয়েছে এবং লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি যেহেতু সে মিরগি রোগে আক্রান্ত ছিলেন এবং তার শরীরের কোথাও কোন জখম এর চিহ্ন নেই সেহেতু আমরা ধারনা করছি ওযু করতে গিয়ে ঘাটলা থেকে পড়ে যেতে পারে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্টের আসলে বিস্তারিত জানতে পারব। এ বিষয়ে তার পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ নেই বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা