1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৯:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচনে মঞ্চ লুঙ্গী পড়া মানুষের জন্য বিশাল পথসভায় নেহাল পাটোয়ারী ভাইস চেয়ারম্যান থেকে চেয়ারম্যান হলেন ইউনুস, ভোলার ৩ উপজেলায় নির্বাচন সাতক্ষীরার ইছামতি নদীতে ভারতীয় নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার! রাজশাহীতে পুষ্টি বিষয়ক মাল্টি সেক্টরাল সমন্বিত কর্মশালা অনুষ্ঠিত রামপালে মেধাবী অন্বেষণ কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত রামপালে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবক যুবতীর আত্মহত্যা ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচন- সুখেদুঃখে মানুষের পাশে থাকবেন সংরক্ষীত সদস্য প্রার্থী নাসিমা লালমোহন উপজেলা নির্বাচন২৪ নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন বোরহানউদ্দিনে উপজেলা চেয়ারম্যান ‘‘জাফর উল্লাহ’, ভাইস চেয়ারম্যান ‘হীরা’’ উপজেলা নির্বাচনে নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন

ভোলা সদরের পরানগঞ্জে ভাতিজা কর্তৃক চাচাকে মারপিঠ

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৯৭ বার পঠিত

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

ভোলা সদরের পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৮ নং ওয়াডের গুপ্তমুন্সী গ্রামে জমির বিরোধে আব্দুল মালেক হাওলাদার ও তার সন্তানদের কে মারধর করেছে প্রতিপক্ষ আবদুল রহমান হাওলাদার, আলাউদ্দিন হাওলাদার, টুলু হাওলাদার, কান্টু, সস্রাট, নকিব ও সাকিব হাওলাদার গ্রুপ। খোজ নিয়ে জানা যায়, আবদুল বারেক হাওলাদার এর ছেলেরা আবদুর রহমান, আলাউদ্দিন, টুলু, কান্টু, সম্রাট, বেলাল মিলে আবদুল মালেক হাওলাদারের স্ত্রীর জমি দখল করে ভোগ করছে।

এলাকার গণ্য মান্য ব্যক্তিদের একাধিক শালিসেও তারা কোনো কর্ণপাত করছে না। এমনকি ভোলা সদর থানার অধিনে কয়েকবার শালিস বৈঠক হলেও তারা জমি জোরপূর্বক দখল করে ভোগ করছে। এদিকে কোর্টের নিষেধ সত্ত্বেও তারা জমি ভোগদখল করে রাখছে। গত ৩০ শে নভেম্বর রোজ বুধবার বিকাল ৩ঃ৩০ এ-র দিকে ভোলা সদর ভূমি অফিস থেকে তহশিলদার জনাব সোলায়মান মিয়া সরেজমিন তদন্তে গেলে তার সামনেই আবদুর রহমান ও তার ভাইয়েরা মিলে দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে আবদুল মালেক হাওলাদার ও তার ছেলে নাজিউর রহমান, আনিসুর রহমান ও মিজানুর রহমান এ-র উপর হামলা করে।

হামলাকারীরা পিটিয়ে আবদুল মালেক হাওলাদারের কাঁধের হাড় ভেঙে ফেলে এবং দাত উপরে ফেলে। এছাড়া আনিসুর রহমান, নাজিউর রহমান ও মিজানুর রহমান কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে আটকে রাখে। পরবর্তীতে পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব আনোয়ার হোসেন ছোটন এ-র সহযোগিতায় আহতদের কে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে আনোয়ার হোসেন ছোটন এ-র বাবা জনাব আবদুল হক সাহেব জানান, দীর্ঘদিন যাবত এটার সালিশ বৈঠক আমি করেছি। কিন্তু আবদুর রহমান ও তার ভাইয়েরা কোনো সালিশ মানে না। তারা গায়ের জোরে মালেক হাওলাদারের স্ত্রীর জমি দখল করে রাখছে। ৮ নং ওয়াডের মেম্বার জনাব জসিম মজগুনী বলেন, এলাকায় বিভিন্ন মানুষের জমিজমা দখল ও অন্যান্য খারাপ কাজ করাই এদের কাজ। এরা ভাইয়েরা সংখ্যায় বেশি হওয়ায় পেশীর জোর দেখিয়ে অন্যের জমি দখল করাই এদের কাজ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব আনোয়ার হোসেন বলেন, আবদুর রহমান ও তার ভাইদের নামে এ-র আগেও অন্য মানুষের জমি দখলের অভিযোগ রয়েছে।

এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা নষ্ট করতে এরা তৎপর। ভোলা সদর মডেল থানায় খোজ নিয়ে জানা যায়, আবদুর রহমান ও ভাইয়েরা মিলে উল্টো আবদুল মালেক হাওলাদার ও তার সন্তানদের নামে মিথ্যে অভিযোগ দায়ের করে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে এবং প্রকাশ্যে হুমকি প্রদান করা হচ্ছে। আহতদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তারা এ ঘটনায় এখনো মামলা দায়ের করেনি। তবে তারা সুস্থ হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে। তারা প্রশাসনের কাছে সুস্ঠ বিচারের দাবী করছে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা