1. admin@upokulbarta.news : admin :
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১০:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভেদুরিয়া চরকালী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফান্ডের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে ভেদুরিয়ায় নবগঠিত ইউনিয়ন কমিটির আনন্দ মিছিলে দুষ্কৃতিকারীদের অতর্কিত হামলার অভিযোগ লালমোহনে স্বামী কর্তৃক স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ আরডিএ’র নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ২শ ৬ কোটি টাকার কাজে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুস্থ স্বাস্থ্যের জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে হবে সিদ্ধিরগঞ্জ,চৌধুরী বাড়ী বাইতুল মা’মুর জামে মসজিদের পুনঃনির্মান ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন মোহনপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী ও মহান বিজয় দিবস উদযাপনে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত পটুয়াখালীতে স্কুল ঝড়ে পড়া ১৭ হাজার শিশুদের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু জেলে পরিবারের নারীদের অধিকার আদায়ে ভোলায় নেটওয়ার্কিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত রাস্তা কেটে বরযাত্রীকে আটকে দেওয়া আলোচিত সেই মেম্বার এর নেতৃত্বে জমি দখলের অভিযোগ, সংঘর্ষ, আহত-১

ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক আলামিনের জামিন না-মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ

সহকারী সম্পাদক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২২
  • ৩৮ বার পঠিত

আশিকুর রহমান শান্তঃ
ভোলা জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক খন্দকার আল-আমিন এর জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরন করেছে আলাদত। পুলিশ এসল্ট মামলায় (জি,আর-৪৭৫) তাকে কারাগারে প্রেরণ করে আদালত।

রবিবার (১৬ অক্টোবর) ভোলার অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে এ মামলা জামিন চায় সে। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো: তারিক হোসেন মামলার আসামি খন্দকার আল-আমিনের জামিন না-মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এসময় উপস্থিত বিএনপির অন্যসব নেতাকর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃস্টি হয়।

কারাগারে পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেন মামলার আসামি পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট আমিনুল ইসলাম বাছেদ। তিনি বলেন, ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আল-আমিন রোববার সকালে ভোলার অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন চাইলে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো: তারিক হোসেন খন্দকার আল-আমিনের জামিন না-মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই ভোলা সদর উপজেলার মহাজনপট্টিতে অবস্থিত ভোলা জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে দেশজুড়ে বিদ্যুতের চরম লোডশেডি ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে আনার দাবিতে বিএনপির কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়। ওই বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় গুলিতে ভোলা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নূরে আলম ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আব্দুর রহিম নিহত হন। এ ছাড়াও সংঘর্ষে বিএনপির অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী গুরুতর আহত হন‌।

ভোলা সদর মডেল থানার ওসি শাহীন ফকির জানান, ও ওই দিনের সংঘর্ষের পর পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগ এনে পুলিশ বাদি হয়ে ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আল-আমিনসহ বিএনপির ৪শত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার আসামি খন্দকার আল-আমিনকে রোববার ভোলার আদালত কারাগারে পাঠিয়েছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা