1. admin@upokulbarta.news : admin :
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা কালীপদ রায়কে গার্ড অব অনার বন্দরে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে প্যালিয়েটিভ কেয়ার বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ‘মিডওয়াইফ পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা’ প্রকল্পের সমাপনী ও লার্নিং শেয়ারিং কর্মশালা সিদ্ধিরগঞ্জে তাঁতখানা এ্যাথলেটিক্স ক্লাবের উদ্যোগে, শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সিজন (১) ২০২৪ উদ্বোধন হয়েছে বাইউস্ট ট্রাস মাস্টার অনুষ্ঠিত পথ হারিয়ে ৯৯৯ এ ফোন, ৩১ পর্যটককে উদ্ধার করল পুলিশ আজ পবিত্র শবেবরাত শবে বরাতের আমল ও ফজিলত পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার প্রত্যয় সালাম হাওলাদারের পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন উঠান বৈঠক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন যুব নেতা শাকিল

‘দ্য বেস্ট হোটেলিয়ার অব বাংলাদেশ’ সম্মাননা পেলেন ভোলার কৃতি সন্তান শাখাওয়াত হোসেন

আশিকুর রহমান শান্ত ভোলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ১৭ বার পঠিত

বাংলাদেশের হসপিটালিটি অ্যান্ড টুরিজম শিল্পের প্রফেশনালদের মধ্যে অন্যতম শাখাওয়াত হোসেন।

নেপালের অ্যালোফট হোটেলে গত বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ১২তম হাই-এইম (হসপিট্যালিটি ইন্ডাস্ট্রি-আর্কিটেকচার, ইন্টেরিয়র্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট) কনফারেন্সে তাকে এ সম্মানে ভূষিত করা হয়। এ সময় দক্ষিণ এশিয়ার হসপিটালিটি সেক্টরের শীর্ষস্থানীয় প্রফেশনাল ও এক্সপার্টরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শাখাওয়াত হোসেন বাংলাদেশে এই খাতের সম্প্রসারণ ও উন্নয়নে যে অসামান্য অবদান রেখেছেন, তাকে দ্য বেস্ট হোটেলিয়ার সম্মাননা প্রদান তারই স্বীকৃতি। তিনি প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এই সম্মানজনক পুরস্কারটি পেলেন। অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট খাতের আরও পাঁচ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

তারা হলেন- এশিয়া প্যাসিফিক এক্সক্লুডিং চায়না (অ্যাপেক) অব ম্যারিয়ট ইন্টারন্যাশনাল, ইন্করপোরেশনের প্রেসিডেন্ট রাজীব মেনন; টুরিজম ফিন্যান্স করপোরেশন অব ইন্ডিয়া লিমিটেডের ডিরেক্টর ও সিএফও অনুপ বালি; দ্য খাইবার হিমালয়ান রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা-এর এমডি উমর খুরশিদ ত্রাম্বু; দ্য লীলা প্যালেসেস, হোটেলস অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেডের সাবেক প্রেসিডেন্ট রাজীব কাউল; ফরচুন পার্ক হোটেলস লিমিটেডের সাবেক এমডি সুরেশ কুমার।

শাখাওয়াত হোসেন তার ২০ বছরের কর্মকুশলতার গুণে বাংলাদেশের হসপিটালিটি শিল্প গঠনে এক চালিকাশক্তিতে পরিণত হয়েছেন। তিনি দেশের একমাত্র হোটেলিয়ার যিনি একাধারে একজন ইন্ডাস্ট্রি প্র্যাকটিশনার, অ্যাকাডেমিশিয়ান ও রিসার্চার; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে টুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে যিনি পিএইচডি করছেন। অনেকটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। দেশের একমাত্র হোটেলিয়ার হিসেবে শাখাওয়াত হোসেন কর্মজীবন শুরু করেছিলেন স্ক্র্যাচ লেভেল থেকে; স্টারউড ইন্টারন্যাশনাল এবং ম্যারিয়ট ইন্টারন্যাশনালে উচ্চপদে কাজ করেছেন বিভিন্ন ধরনের নেতৃত্বের গুণাবলিতে। এখন তিনি ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস পিএলসির সিইও। চলমান ৩টি ও আসন্ন ৪টি আন্তর্জাতিক চেইন হোটেলের তত্ত্বাবধান করছেন।

হসপিটালিটি শিল্পের বৃদ্ধিতে দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী নেতৃত্ব, উদ্ভাবন ও অঙ্গীকারের জন্য প্রতিশ্রুতিশীল ব্যক্তিদের স্বীকৃতিস্বরূপ হাই-এইম আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়।

শাখাওয়াত হোসেন তিনি ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলার কৃতি সন্তান। তিনি শুধু উদিয়মান শিল্প উদ্যোক্তা হিসেবে নয় বিশেষ করে পর্যটন শিল্পের পরিকল্পিত বিভিন্ন প্রকল্পে নেতৃত্ব প্রদানেও ভূয়শী প্রশংসা অর্জন করেন ও দেশের অর্থনৈনিতক উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। তিনি শুধু ভোলার গর্ব নয়; দক্ষিন বাংলাসহ সারাদেশেরই গর্ব। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এরকম শিল্প উদ্যোক্তার পাশাপাশি টেকসই নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য আরো বেশি নেতৃত্বশীল ব্যক্তিত্ব এগিয়ে আসা প্রয়োজন মনে করেন অর্থনীতিবিদরা।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা