1. admin@upokulbarta.news : admin :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শেখ হাসিনা’র জন্য ঘষিয়াখালী ক্যানেল সুন্দরভাবে চলছে- সিটি মেয়র আ. খালেক দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না- মেয়র শেখ আ. রহমান ভোলায় রওশন আরা ও রাব্বী হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা কালীপদ রায়কে গার্ড অব অনার বন্দরে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে প্যালিয়েটিভ কেয়ার বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ‘মিডওয়াইফ পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা’ প্রকল্পের সমাপনী ও লার্নিং শেয়ারিং কর্মশালা সিদ্ধিরগঞ্জে তাঁতখানা এ্যাথলেটিক্স ক্লাবের উদ্যোগে, শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সিজন (১) ২০২৪ উদ্বোধন হয়েছে বাইউস্ট ট্রাস মাস্টার অনুষ্ঠিত পথ হারিয়ে ৯৯৯ এ ফোন, ৩১ পর্যটককে উদ্ধার করল পুলিশ আজ পবিত্র শবেবরাত

৯ম বারের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন আ’লীগের বর্ষীয়ান নেতা- তোফায়েল আহমেদ

আশিকুর রহমান শান্ত
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৮ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৪৬ বার পঠিত

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সহ ৯ম বারের মতো জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন দ্বীপ সিংহ নামে খ্যাত বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সচিব, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য, সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী বর্ষীয়ান নেতা আলহাজ তোফায়েল আহমেদ এমপি। তিনি ১৯৭৩, ১৯৮৬, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। ২০২৪ সালের বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে মোট ৯ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেন তিনি। আওয়ামী লীগের এই অন্যতম নেতা, ভোলা-১ সদর আসন থেকে ৬ বার এবং ভোলা-২ (দৌলতখান- বোরহানউদ্দিন) আসন থেকে ৩ বার সহ মোট ৯ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

ভোলা সদর উপজলোর দক্ষিণ দিঘলদী ইউনিয়নের কোড়ালিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তোফায়েল আহমেদ। বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহচর ও রাজনৈতিক সচিব। তবে রাজনৈতিক সচিব হলেও মূলত প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। মা ভক্ত তোফায়েল আহমেদ ১৯৭০ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়ে মাত্র ২৭ বছর বয়সে প্রথম এমএনএ পদ লাভ করেন।

বঙ্গবন্ধু উপাধিকারী এই নেতা ’৬৯-এর গনঅভ্যুত্থান, ’৭০-এর নির্বাচন, ’৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, ’৯০-এর স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলন এবং ১৯৯৬ এ তত্বাবধায়ক সরকারের দাবিসহ আওয়ামী লীগের সকল আন্দোলন সংগ্রামে রাজনৈতিক অঙ্গনে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন। স্বাধীনতার পর থেকে ভোলা জেলা সদর আসনসহ ভোলার ৪টি আসনের ৭ উপজেলায় আওয়ামী লীগের পক্ষে দলকে সাংগঠনিক ভাবে গড়ে তুলেছেন। তার নেতৃত্বে ভোলার অন্য আসন গুলোতেও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব তৈরি হয়েছে। গত ১৫ বছরে দলীয় কর্মসূচিতে তার উপস্থিতি দলীয় নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত রাখতে সাহায্য করেছে।

শুধু রাজনীতিই নয় ভোলার উন্নয়নেও তার অবদান জনস্বীকৃত। বিশেষ করে ব্লক ও জিও ব্যাগ স্থাপনে ভোলাকে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করেছেন। বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ হলেও এই বর্ষীয়ান নেতা গ্যাস- বিদ্যুৎ সমৃদ্ধ জেলাকে ভোলা- বরিশাল ব্রিজ নির্মাণের মাধ্যমে সারা দেশের সাথে সংযুক্ত করে তার স্বপ্নের বাস্তবায়ন দেখতে চান।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা