1. admin@upokulbarta.news : admin :
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আজ পবিত্র শবেবরাত শবে বরাতের আমল ও ফজিলত পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার প্রত্যয় সালাম হাওলাদারের পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন উঠান বৈঠক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন যুব নেতা শাকিল পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন মুরুব্বীদের নিয়ে উঠান বৈঠক করছেন অধ্যক্ষ সেলিম কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ ফকিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক-কর্মচারীদের বিদায় সংবর্ধনা ফকিরহাটের বেতাগায় জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে পথসভা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে গরীব-দুখী মানুষের সুবিধা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি মোশারফ হোসেনের

এমপি প্রার্থী নাসিরের বিরুদ্ধে দরিদ্র মানুষের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মামলা

যুগ্ম সম্পাদক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৫১ বার পঠিত

পটুয়াখালী: পটুয়াখালী-০১ আসনের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বাংলাদেশ কংগ্রেসের নাসির উদ্দীন তালুকদারের বিরুদ্ধে পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল মাজিস্ট্রেট আদালতে ৩৬ লক্ষ টাকার প্রতারণা মামলা করেছে ভুক্তভোগী মোঃ সাইফুল্লাহ নামের একব্যক্তি।

বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল মাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোঃ আশিকুর রহমানের আদালতে দায়ে করা মামলায় নাসির উদ্দীন তালুকদারসহ তার পরিবারের আরও ৬জনসহ মোট সাত জনকে আসামী করা হয়েছে।

বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন মামলার আইনজীবী মোঃ ফোরকান রতন। সি.আর মামলা নং ২২২৮/২০২৩.

মামলার আসামীরা হলেন সদর উপজেলার জৈনকাঠী এলাকার মৃত্যু হাকিম হাওলাদারের ছেলে ও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী-০১ আসনে বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী নাসির উদ্দীন তালুকদার (৪৮), রুস্তুম আলী সরদারের মোস্তফা জামাল (৫৫), মৃত্যু ওচমান তালুকদারের ছেলে আব্দুল হাই তালুকদার (৬৫), নাসির উদ্দীন তালুকদারের স্ত্রী লাইজু পারভীন (৪০), টাউন জৈনকাঠী এলাকার এনছান আলী হাওলাদারে ছেলে এনায়েত হোসেন (৬০), গুলবাগ এলাকার নুরুল ইসলামের স্ত্রী কাকুলী (৩৫) এবং দক্ষিণ সবুজবাগ এলাকার সামশুল হক মোল্লার ছেলে সহিদুল ইসলাম (৪০)।

এদিকে আজ দুপুরের আদালত প্রাঙ্গণে প্রতারকের বিচার চেয়ে জেলা আইনজীবী সমিতির সামনে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী নারী ও পুরুষ। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ভুক্তভোগী ও মামলার বাদী সাইফুল্লাহ, ভুক্তভোগী পাখি আক্তার, রুহুল আমিন, জাহানুর বেগম ও শাহিনুর বেগম।

এসময় বক্তারা বলেন, নাসির উদ্দীন তালুকদারের নিদিষ্ট কোন পেশা নেই। সে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে আশ্রয় নিয়ে স্থানীয় মানুষের মধ্যে বিশ্বাস স্থাপন ও সম্পর্ক গড়ে তুলে। তারপর সেখানকার মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে আত্মগোপন করে। প্রতারণার টাকায় একজন ভোটে দাড়াবে, আর মানুষ তাকে ভোট দিবে, তা হতে পারেনা।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নাসির উদ্দীন নিজের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ২০০২ সালে জনকর্ম সহায়ক সোসাইটি (জনক) নামে একটি নামসর্বস্ব এনজিও প্রতিষ্ঠা করে। পটুয়াখালী পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে জাকিয়া মঞ্জিলে জাঁকজমকপূর্ণ অফিস নিয়ে মানুষকে আকৃষ্ট কটে। দীর্ঘদিন কার্যক্রম চালিয়ে মানুষের বিশ্বাস অর্জন করে প্রায় পাঁচ শতাধিক সাধারণ মানুষের প্রায় কোটি টাকা গ্রহণ করে। তবে কয়েকদিন পরে নাসির উদ্দীন আত্মগোপনে চলে। পরে নাসির উদ্দীন ২০১২ সালের জুলাই মূসোর ৫ তারিখে ভুক্তভোগীদের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে অঙ্গিকার করে আবার আত্মগোপনে চলে যায়।

পরে গত ২৫ তারিখ নাসির উদ্দীন তালুকদার জৈনকাঠী এলাকার চন্দনবাড়িয়ায় নির্বাচনী প্রচারণা গেলে ভুক্তভোগীরা টাকা পয়সার বিরুদ্ধে জিজ্ঞাসাবাদ করলে, সুকৌশলে পালিয়ে আসে। শেষমেষ কোন নাসির উদ্দীন তালুকদারকে না পেয়ে দরিদ্র পরিবার গুলো কোন কূলকিনারা হারিয়ে আদালতে মামলা করেছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

তবে অভিযুক্ত নাসির উদ্দীন তালুকদার তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। আমি নির্বাচন করি, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কৌশল করে, সাবেক সদস্যদের দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মামলা ও অপ্রচার করছে। আমি সমিতি বন্ধ করে দিছি ১৫ বছর আগে, আর এখন বিশ বছর পরে এসে সেই সমিতির সদস্যরা টাকার দাবী করে এতদিন তারা কেন টাকা চায়নি করেনি। আমি আরও তাদের কাছে সমিতির বকেয়া ঋণের টাকা পাই। আমি অবশ্যই সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করবো

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা