1. admin@upokulbarta.news : admin :
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
২০২৪-২৫ বাজেটে সব ধরনের তামাকপণ্যের কর ও মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন মোহনপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন লালমোহনে ৪৮০ টাকা পাওয়ানাকে কেন্দ্র করে মারপিট আহত ৬ শেখ হেলাল উদ্দীন সরকারি কলেজে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন ফকিরহাটে প্রান্তিক খামারিদের প্রদর্শনী দেখে অভিভূত সবাই নিজের বিবেক দ্বারা পরিচালিত হয়ে উপজেলা নির্বাচনে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন-রামপালে কেসিসি মেয়র উম্মুক্ত হোন,উদার হোন এবং অন্যদের নেতৃত্বের জন্য স্থান তৈরি করুন-রেজাউল করিম চৌধুরী লালমোহনে চাচা শ্বশুরকে হত্যার হুমকি দিলেন ভাতিজী জামাতা গালকাটা ফরিদ বোরহানউদ্দিনে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু ফকিরহাটে বিষ পানে এসএসসি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

ভোলায় মেঘনা নদীতে অভিযানে মেরিন ফিসারিজ কর্মকর্তা ও ক্ষেত্র সহকারি উপর জেলের হামলা

আশিকুর রহমান শান্ত, ভোলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৪৯ বার পঠিত

ভোলা প্রতিনিধিঃ

ভোলার মনপুরায় মেঘনা নদীতে অভিযান পরিচালনার সময় দুই মৎস্য কর্মকর্তার উপর জেলে ও স্থানীয়দের হামলা ঘটনা ঘটেছে। তারা হলেন মাহামুদুল হাসান ও মনির হোসেন। এ ঘটনায় পুলিশ আহত দুই মৎস্য কর্মকর্তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সকালে অভিযান পরিচালনা করতে গিয়ে উপজেলার ১ নং মনপুরা ইউনিয়নের ঢাকার লঞ্চঘাট এলাকায় নিরীহ জেলেদের ধাওয়া করে। ধাওয়া খেয়ে জেলেরা নদীর তীরবর্তী এক বিধবা নারীর বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এসময় দুই মৎস্য কর্মকর্তা বিধবা নারীর ঘরের দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করতে চাইলে ওই নারী বাঁধা দেয়। বাধা উপেক্ষা করে দরজা ভেঙে জেলেসহ ওই নারীকে মারধর করে। জেলেদের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে ক্ষুব্ধ হয়ে দুই মৎস্য কর্মকর্তাকে গণধোলাই দেয়। পরে মনপুরা থানা পুলিশ খবর পেয়ে আহত দুই কর্মকর্তাকে উদ্ধার করে মনপুরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। এঘটনায় ওই নারী শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগে মনপুরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলার মৎস্য অফিসের মেরিন ফিসারিজ কর্মকর্তা মাহামুদুল হাসান ও ক্ষেত্র সহকারি মনির হোসেন অভিযানের নামে মেঘনায় জেলেদের কাছ থেকে বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে মোটা অংকের চাঁদা আদায় করে আসছিলো। যে সকল জেলেরা তাদের চাহিদা মতো চাদাঁ দিতেন তারা নির্দিষ্ট পতাকা বহন করে নিরাপদে মাছ ধরতেন। অন্যদিকে যে সকল নিরীহ ও সাধারণ জেলেরা চাদাঁ দিতেন না তাদেরকে অভিযানের নামে বিভিন্ন হয়রানি করতেন। এতে দিনদিন ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে নিরীহ জেলেরা।

আহত উপজেলা মৎস্য অফিসের মেরিন ফিশারিজ কর্মকর্তা মোঃ মাহামুদুল হাসান জানান, অবরোধকালীন সময়ে নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে আমরা অভিযান পরিচালনা করি। মেঘনা নদীতে পেতে রাখা জালের কাছে গেলে জেলেরা স্পীডবোট যোগে এসে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমি ও আমার সহকর্মী মনির হোসেন গুরুতর আহত হই। পরে থানা থেকে পুলিশ গিয়ে আমাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। উদ্ধতন মহলের নির্দেশনা মেনে এ ব্যাপারে মনপুরা থানায় অভিযোগ করা হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (অতিরিক্তি দায়িত্ব) মারুফ হোসেন মিনার জানান, অনুমতি সাপেক্ষে আমাদের মেরিন ফিশারিজ কর্মকর্তা ও ক্ষেত্র সহকারি অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় জেলেরা তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে দুজনে গুরুতর আহত হয়।

মনপুরা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জহিরুল ইসলাম জানান, জেলেদের সাথে মৎস্য কর্মকর্তাদের মারামারির ঘটনার জেরে এক বিধবা নারী থানায় এসে অভিযোগ করেছেন। এছাড়া মৎস্য অফিসের পক্ষ থেকেও অভিযোগ দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে ।তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা