1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মেঘনা নদীতে কর্ণফুলী-৩ লঞ্চে আগুন, আতঙ্কিত যাত্রীরা ভোলায় পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু ফকিরহাটের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে স্বপন দাশের প্রচার শুরু চরফ্যাশনে ভিকটিমকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান এর বিরুদ্ধে আদালতের আদেশ মানতে গড়িমসি করছেন খুলনা বিভাগীয় পরিবার পরিকল্পনা পরিচালক রবিউল আলম বাইউস্টে নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত Sustainability with Profitability is Possible-Rezaul Karim Chowdhury লালমোহনে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মারপিট আহত ১ ২০২৪-২৫ বাজেটে সব ধরনের তামাকপণ্যের কর ও মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন মোহনপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন

পটুয়াখালী সেতুতে অতিরিক্ত টোল আদায় নিয়ে পরিবহন শ্রমিকদের মারধরের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ; দুই ঘন্টা পরে স্বাভাবিক

যুগ্ম সম্পাদক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৭ জুলাই, ২০২৩
  • ৬০ বার পঠিত

পটুয়াখালী: পটুয়াখালী সেতুতে অতিরিক্ত টোল আদায় ও পরিবহন শ্রমিকদের মারধরের প্রতিবাদে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক টোল প্লাজা সামনে অবরোধ করেছে পরিবহন শ্রমিকরা।

রোববার (১৬ জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে টোল দেওয়া নেওয়া নিয়ে জুতি পরিবহনের গ্লাস ভাংচুর ও সুপারভাইজারকে মারধরের প্রতিবাদে প্রায় দুই ঘন্টা ধরে সড়ক অবরোধ করে রাখে তারা।

পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে ভোগান্তিতে পরে হাজার হাজার যাত্রাীরা। দুর্ভোগের শিকার হয় রোগীরাও।

মারধরের শিকার জুথী পরিবহনের সুপারভাইজার মোঃ শাকিল জানায়, আমরা টোল দিয়ে যাওয়ার সময়, আরও বেশি টোল দাবী করে, পরে তারা গাড়ীতে ইট মারে এবং পিছনের গ্লাস ভাংচুর করে। এটা জিজ্ঞেস করতে নামলে তারা আমাকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পটুয়াখালী সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান ও সদর থানার ওসি জসীম উদ্দিন।

পটুয়াখালী সদর থানার ওসি জসীম উদ্দিন বলেন, টোল আদায় নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে একটি সমস্যা হয়েছে। দীর্ঘক্ষণ সড়ক অবরোধ করে রাখে শ্রমিকরা। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক আছে, টোল আদায়ের সমস্যা ও মারধরের বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গত ৬ জুলাই থেকে পটুয়াখালী সেতুর টোল আদায়ের নতুন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বেপারী টেড্রার্স দায়িত্ব গ্রহন করার পর এমন পরস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

অনুসন্ধানে জানাযায়, ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরে পটুয়াখালী সড়ক বিভাগাধীন জাতীয় মহা সড়কের (এন-৮) এর পটুয়াখালী সেতুর পারাপার টোল আদায়ের জন্য ৭ জুলাই ২৩ থেকে ৩০ জুন ২০২৬ পর্যন্ত ১০৯০ দিন সময়ের জন্য মেসার্স ব্যপারী ট্রেডার্স এর সাথে চৌত্রিশ কোটি একুশ লক্ষ সাতাশি হাজার পাঁচশত টাকা মূল্যের চুক্তি সম্পাদন হয়। চুক্তি অনুযায়ী পটুয়াখালী সড়ক বিভাগ সেতুর যে টোল নির্ধারন করেছে তাতে ট্রেইলার ৩৭৫ টাকা, ভাড়ি ট্রাক ৩০০ টাকা, মিডিয়াম ট্রাক ১৫০ টাকা, বড় বাস ১৩৫ টাকা, মিনি ট্রাক ১১৫ টাকা, কৃষি কাজে ব্যবহৃত যানবাহন ৯০ টাকা, মিনিবাস /কোস্টার ৭৫ টাকা, মাইক্রো বাস ৬০ টাকা, ফোর হুইল চালিত যানবাহন ৬০ টাকা, সিডান কার ৪০ টাকা, মটরসাইকেল ১০ টাকা এবং রিকশা, ভ্যান, বাইসাইকেল, ঠেলাগাড়ির জন্য ৫ টাকা ভাড়া নির্ধারিত হয়েছে। তবে বাস্তব চিত্র ঠিক উল্টো। অথিক মূল্যে ইজারা নেয়া হয়েছে এমন অজুহাতে যে যার মতো করে যার কাছ থেকে যা পারছে সেই অনুযায়ী টোল আদায় করছে।

তবে, সরেজমিন উপস্থিত থেকে দেখা যায় অধিকাংশ মিনি ট্রাক থেকে দেড়শ থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত আদায় করা হচ্ছে। এ নিয়ে যানবাহন চালকেদের সাথে বাক বিতন্ডার ঘটনাও ঘটছে। হঠাৎ করেই দ্বীগুন ভাড়া হওয়ায় যানবাহন চালকরাও কিছুটা ভোগান্তির মধ্যে পরেছেন। এছাড়া কুয়াকাটা গামী পর্যটকবাহী বাস গুলোর কাছ থেকে ইচ্ছে মত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। বাসের জন্য ১৩৫ টাকা ভাড়া নির্ধারিত থাকলেও নেয়া হচ্ছে ৩০০ টাকা।

পটুয়াখালী থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকায় চলাচলকারী মিনিট্রাক চালক আব্দুল মান্নান বলেন, ‘আমাদের ‘ন’ সিরিয়ালের গাড়ী, আগে টোল ছিল ৬০ টাকা সরকার টোল বৃদ্ধি করেছে এখন টোল নির্ধারন করা হয়েছে ১১৫ টাকা, কিন্তু আমাদের কাছ থেকে ১৫০ টাকা করে টোল নেয়া হচ্ছে। ঠিকাদারের লোকজন আমাদের কাছ থেকে জোর করে এই টাকা নিচ্ছে। আমরা চাই সরকার যে টোলের চাট দিয়েছে সেই অনুযায়ী ভাড়া আদায় করা হোক।

এ বিষয়ে ইজারাদার মেসার্স বেপারী ট্রেডার্স এর প্রোপাইটার আবুল বাশার বলেন, সরকার নির্ধারিত রেটেই তারা টোল আদায় করছেন। তবে তার সামনেই একটি মিনি ট্রাক থেকে ১৫০ টাকা ভাড়া আদায় করার বিষয়টি ধরিয়ে দিলে তিনি বলেন, ‘প্রথম প্রথম তো সে কারনে কিছুটা ভুল ভ্রান্তি হচ্ছে, কয়েকদিন পর ঠিক হয়ে যাবে।’

পটুয়াখালী সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এ এম আতিক উল্লাহ বলেন, ‘প্রতি তিন বছর পর পর সেতু এবং ফেরির টোল পূনঃ নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। পটুয়াখালী সেতুর টোল ও পুনঃ নির্ধারন করা হয়েছে এবং এ সংশ্লিষ্ট টোল চার্ট টোল প্লাজায় লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। এর বেশি টোল আদায় করার কোন সুযোগ নেই। যেহেতু এ বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে, সে কারনে বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা