1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৫:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া ঈদ উপলক্ষে রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করলো মাহাবুবা মতলেব তালুকদার ফাউন্ডেশন ৷ ভোলায় ঘুর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারের মাঝে ১৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করল কোস্ট ফাউন্ডেশন বর্তমান সরকার অসহায় দুস্থদের সরকার-মেয়র শেখ আ: রহমান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পরিকল্পনা আছে বটে, কিন্তু বাস্তবায়নে বাজেট নেই বাগেরহাটে কলেজ শিক্ষকদের বেসিক আইসিটি প্রশিক্ষণের সনদ প্রদান বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফকিরহাটের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানগণের শ্রদ্ধা নিবেদন সাতক্ষীরায় নাগরিক সংলাপ জলবায়ু সংকটে নিপতিত সাতক্ষীরায় বাসযোগ্য ও পরিকল্পিত নগর গড়ে তোলার আহবান মানারাতুল উম্মাহ মডেল মাদরাসার অভিভাবক সমাবেশ ও সবক অনুষ্ঠান মোহনপুরে পিজি সদস্যদের পোল্ট্রি খাদ্য ও উপকরন বিতরণ

মোহনপুরে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও আবাসিক মেডিকেল অফিসারের আম বানিজ্য

যুগ্ম সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২১ মে, ২০২৩
  • ৯৭ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিভিন্ন ফলসহ আম গোপন বৈঠকে খাদ্য সরবরাহের ঠিকাদার মেসার্স রিয়া এন্টারপ্রাইজ বিপুলের ভাগিনাকে নামমাত্র মূল্য ইজারা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অনেকের ধারণা বিপুল নিজেই ইজারাটি নিয়েছেন তবে তার ভাগিনা ইলিয়াসের নামে। বিষয়টি নিয়ে জলঘোলা হওয়ায় এবং সাংবাদিকরা জেনে গিয়ে এবিষয়ে আবাসিক মেডিকেল অফিসারের বক্তব্য চাওয়ায় ইজারা বাতিল করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় ও হাসপাতালসুত্রে জানা গেছে,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মোহনপুর সীমানা প্রাচীরের মধ্যে রোপনকৃত ফলদ বৃক্ষ আম, কাঠালসহ অন্যান্য গাছের ফল বাংলা ১৪৩০ সনের জন্য হাসপাতাল মসজিদের উন্নয়কল্পে উন্মুক্ত ইজারা প্রদানের জন্য গত ২৭ এপ্রিল ২৩ একটি স্মারকে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আরিফুল কবির, সহকারী সার্জন ডাঃ অনিক শাহা শুভ, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ রাশেদুল ইসলামকে সদস্য করে কমিটি গঠন করেন। তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ইজারা বিজ্ঞপ্তি ঢোল সহরত বা মাইকিং না করে শুধুমাত্র অফিসবোর্ডে নোটিশ টানিয়ে গোপন বৈঠকে নামমাত্র দশ হাজার টাকায় হাসপাতালের খাবার সরবরাহের ঠিকাদার বিপুল হোসেনের ভাগিনা ইলিয়াসের নামে ফলগুলো ইজারা দিয়েছেন। কর্তৃপক্ষ ইজারা বিজ্ঞপ্তিতে হাসপাতালে কোন ফলের কতটি গাছ রয়েছে তা উল্লেখ করেননি।

তবে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের অনুসন্ধানে উঠে এসেছে হাসপাতাল সীমানা প্রাচীরের মধ্যে ফলে ভর্তি প্রায় ৪৫টি আম, ৮টি কাঠাল, ৮০ টি কলা , ২টি বরই, ৩টি বেল, ৬টি নারকেল, ৩টি পেয়ারা, ১টি আমড়া, ৪টি পেপে , ১টি জলপাই গাছ থাকলেও হাসপাতাল স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আরিফুল কবির ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ রাশেদুল ইসলাম যোগসাজসে হাসপাতালে খাদ্য সরবরাহের ঠিকাদার বিপুল হোসেন এর ভাগিনা উপজেলার ভীমনগর গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে ইলিয়াসের কাছে দশ হাজার টাকায় বিক্রি করেছেন। অভিযোগ রয়েছে, গাছগুলোর অর্ধেক ফল পাবে ইজারাদার আর অর্ধেক পাবে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার। বিষয়টি হাসপাতালের স্টাফ ও লোকমুখে জানাজানি হওয়ায় মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ মোঃ রাশেদুল ইসলামের কাছে স্থানীয় সাংবাদিকরা ফল ইজারা সংক্রান্ত বিষয়ে বক্তব্য জানতে গত ১২ মে সন্ধ্যায় মুঠোফোনে বক্তব্য চাইলে তিনি মোবাইলে বক্তব্য না দিয়ে পরের দিন অর্থাৎ ১৩ মে ২৩ রোজ শনিবার সরাসরি কথা বলার জন্য অফিসে ডাকেন। ১৩ মে স্থানীয় সাংবাদিকরা হাসপাতালে যান। স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার সাংবাদিকদের জানান, ফল ইজারাটি বাতিল করা হয়েছে বলে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আরিফুল কবির ব্যাক ডেটে স্বাক্ষরিত একটি নোটিশ দেখান। তথ্য উপাত্ত নিয়ে সাংবাদিকরা হাসপাতাল থেকে বের হবার সময় আরএমও’র উস্কানিতে হাসপাতালে খাদ্য সরবরাহের ঠিকাদার বিপুল একজন সিনিয়র সাংবাদিকের সাথে মারমুখী আচরণ করে অন্যায় অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং বলেন হাসপাতাল নিয়ে উল্টাপাল্টা সংবাদ প্রকাশ করলে ভবিষ্যতে ফল ভাল হবেনা বলে হুমকি ধামকি করেন। এবিষয়ে ভুক্তভোগী ওই সাংবাদিক মোহনপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

ফলগুলি খাদ্য সরবরাহ ঠিকারদার বিপুলের ভাগিনা ইলিয়াসের নামে ইজারার ঘটনায় হাসপাতালে কর্মরত স্টাফদের মাঝে অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে সাংবাদিকরা ফল ইজারা বিষয়টি জেনে যাওয়ায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তড়িঘড়ি করে ইজারা বাতিল করেন।
এর আগের দু’বছর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ও ঠিকাদার বিপুল মিলে হাসপাতালের ফলগুলো সংগ্রহ করে কিছু ফল স্টাফদের মাঝে বিতরণ করে তিনজন মিলে ভাগাভাগি করেছেন বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেক স্টাফ জানান,

এবিষয়ে ফল ইজারাপ্রাপ্ত ঠিকাদার ইলিয়াস হোসেন মুঠোফোনে জানান, হাসপাতাল ঠিকাদার বিপুল আমার মামা। ফলগুলি আমি দশ হাজার টাকায় ইজারা নিয়েছি এবং টাকা পরিশোধ করেছি। ইজারা বাতিলের কোন নোটিশ পায়নি।

এবিষয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আরিফুল কবির বলেন, হাসপাতাল সীমানা প্রাচীরের মধ্যে আমসহ বিভিন্ন গাছের ফল ইলিয়াস নামে একজনকে ইজারা দেওয়া হয়েছিল। হাসপাতালের স্টাফদের কথা বিবেচনা করে আবার তা বাতিল করা হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা