1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নানা আয়োজনে পলিত হচ্ছে দৈনিক পত্রদূত সম্পাদক স.ম আলাউদ্দীন মৃত্যুবার্ষিকী সাতক্ষীরায় ২৪১ জনের মাঝে ১৭ লাখ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ কুমিল্লায় দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া ঈদ উপলক্ষে রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করলো মাহাবুবা মতলেব তালুকদার ফাউন্ডেশন ৷ ভোলায় ঘুর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারের মাঝে ১৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করল কোস্ট ফাউন্ডেশন মোংলায় দিন দুপুরে দোকান ঘর ভাংচুর ও জবর দখলের চেষ্টা বর্তমান সরকার অসহায় দুস্থদের সরকার-মেয়র শেখ আ: রহমান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পরিকল্পনা আছে বটে, কিন্তু বাস্তবায়নে বাজেট নেই বাগেরহাটে কলেজ শিক্ষকদের বেসিক আইসিটি প্রশিক্ষণের সনদ প্রদান বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফকিরহাটের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানগণের শ্রদ্ধা নিবেদন

দূর্ভোগ লাগব হচ্ছে দেউলা লঞ্চঘাটের যাত্রীদের

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২০ মে, ২০২৩
  • ১২০ বার পঠিত

জেএম.মমিন, বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর চরম দূর্ভোগ ও কষ্ট লাগব হতে যাচ্ছে ভোলার বোরহানউদ্দিনের দেউলা লঞ্চঘাট দিয়ে ঢাকায় আসা-যাওয়া করা সাধরন যাত্রীদের ৷ এটি বোরহানউদ্দিনের সবচেয়ে পুরনো লঞ্চঘাট হলেও লঞ্চে উঠানামা করতে কোনো পল্টুন না থাকায় প্রতিদিন ঢাকাগামী যাত্রীদের পরতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগে ৷ ঘাটটিতে পল্টুন নির্মানের দাবী তোলা হয়েছিল কয়েকবার তাতে কোন ফলপ্রসূ হয়নি ৷ এবার সেই দূর্ভোগের অবসান হতে যাচ্ছে ৷ নির্মিত হচ্ছে আধুনিক পল্টুন ৷ এতে খুশি সাধারন যাত্রী, স্থানীয় ব্যবসায়ী ও এলাকার মানুষ ৷ তারা মনে করেন পল্টুনটি নির্মান সম্পন্ন হলে যাত্রী দূর্ভোগ কমার পাশাপাশি এলাকার উন্নয়ন সাধিত হবে ৷ ইতিমধ্যে ঢাকা-লালমোহন রুটে চালু হয়েছে দিবা সার্ভিস লঞ্চ ৷ যা যাত্রীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ৷ লঞ্চ গুলোতে বেড়েছে যাত্রীর চাপ ৷
ওই এলাকার আরপন আলী (৫৫) জানান, আমার জন্মের পূর্ব থেকে এখানে নিয়মিতভাবে লেতরা ও লালমোহন রুটে চলাচল করা লঞ্চ গুলো ঘাট করে আসছে ৷ কিন্তু কোনো পল্টুন না থাকায় কখনো নৌকায় করে কখনো হাটু কোমর পানিতে নেমে লঞ্চে উঠতে হয় ৷ এখন পল্টুন নির্মান হচ্ছে তাই আমরা খুশি ৷ এত বছর পর হলেও আমরা এখন স্বাভাবিকভাবে লঞ্চে উঠতে পারবো ৷
মোঃ জুয়েল, আনসার ও শাকিলসহ অনেক যাত্রীরা জানান, এই লঞ্চঘাটটি দেউলা-সাচড়ার মানুষদের কাছাকাছি হওয়ায় দূর্ভোগ সত্যেও শতশত যাত্রীরা এখান দিয়ে আসা যাওয়া করছে ৷ এখানে একটা পল্টুন নির্মান আমাদের প্রানের দাবী ছিল ৷ এত বছর পরে এখন আমাদের চাওয়া বাস্তবে রূপ নিচ্ছে ৷ এতে করে এতদিনের কষ্ট লাগব হবে ৷
স্থানীয় কাচারী হাট বাজারের ব্যবসায়ী মোঃ রাছেল ও অনীল চন্দ্র জানান, লঞ্চ যোগে এই ঘাট দিয়ে ঢাকা থেকে পন্য আনলে লঞ্চ থেকে নামাতে আমাদের অনেক সমস্যায় পরতে হতো এবং খরচও বেশি হতো ৷ পল্টুনের কাজ শেষ হলে আমারা অনেক উপকৃত হবো ৷ তারা আরো জানান, পল্টুন নির্মান হওয়ায় আমাদের আশেপাশে যত গুলো বাজার আছে সেখানের সকল ব্যবসায়ীরাই উপকৃত হবেন ৷
লঞ্চঘাটের ইজাদার সজল আরিন্দা জানান, দীর্ঘ বছর ধরে এখানে লঞ্চঘাট থাকলেও কোন পল্টুন ছিল না ৷ তাই প্রতিদিন সাধারন যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হতো ৷ পল্টুনের নির্মাণ কাজ চলছে ৷ কাজ শেষ হলে আমাদের দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন পূরণ হবে ৷

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা