1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৪:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া ঈদ উপলক্ষে রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করলো মাহাবুবা মতলেব তালুকদার ফাউন্ডেশন ৷ ভোলায় ঘুর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারের মাঝে ১৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করল কোস্ট ফাউন্ডেশন বর্তমান সরকার অসহায় দুস্থদের সরকার-মেয়র শেখ আ: রহমান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পরিকল্পনা আছে বটে, কিন্তু বাস্তবায়নে বাজেট নেই বাগেরহাটে কলেজ শিক্ষকদের বেসিক আইসিটি প্রশিক্ষণের সনদ প্রদান বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফকিরহাটের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানগণের শ্রদ্ধা নিবেদন সাতক্ষীরায় নাগরিক সংলাপ জলবায়ু সংকটে নিপতিত সাতক্ষীরায় বাসযোগ্য ও পরিকল্পিত নগর গড়ে তোলার আহবান মানারাতুল উম্মাহ মডেল মাদরাসার অভিভাবক সমাবেশ ও সবক অনুষ্ঠান মোহনপুরে পিজি সদস্যদের পোল্ট্রি খাদ্য ও উপকরন বিতরণ

ভোলায় ৩ সন্তান নিয়ে ঘুমানো অন্তঃসত্ত্বা নারীকে জবাই করল দুর্বৃত্তরা

ডেস্ক নিউজঃ
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৫ মে, ২০২৩
  • ১৮৪ বার পঠিত

আশিকুর রহমান শান্ত,
ভোলায় ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক নারীকে গলা কেটে জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনার পর পুলিশের বেশ কয়েকটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘটনার রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করেছেন।

সোমবার (১৫ মে) সকাল ৯টার দিকে সদর উপজেলা ২নং পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের সাজিকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।খুন হওয়া বিবি কুলসুম (৪০) ওই গ্রামের মো. তছির মাঝির স্ত্রী এবং ৫ সন্তানের জননী। তছির পেশায় জেলে।

রোববার (১৪ মে) দিনগত রাতে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। ঘটনার দিন রাতে ছোট ৩ সন্তান নিয়ে কুলসুম ঘুমিয়েছিলেন। প্রতিপক্ষের সঙ্গে জমিসংক্রান্ত মামলার ভয়ে তাঁর স্বামী বেশ কয়েকদিন ধরে অন্যত্রে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

নিহতের স্বজনরা তাঁর ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি নিশ্চিত করে ভোলা টাইমস্ কে জানান, প্রতিপক্ষদের সঙ্গে জমিসংক্রান্ত বিরোধের মামলা হওয়ার পরে থেকে কুলসুমের স্বামী অন্যত্রে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ঘটনার দিন রাতে কুলসুম ৩ সন্তান নিয়ে ঘরে ঘুমিয়েছিলেন। কখন কারা কুলসুমকে হত্যা করেছে তা কেউই টের পায়নি। স্বামী তছির রোববার রাত থেকে কুলসুমের ফোনে একাধিকবার কল দিয়েছে। কল রিসিভ না হওয়ায় তছির তাঁর বড় ছেলেকে সোমবার সকালে ফোন করে বাড়িতে যেতে বলে (বড় ছেলে বিয়ে করে একই গ্রামে থাকে)। বড় ছেলে বাড়িতে গিয়ে এ হত্যাকাণ্ড দেখতে পান। খবর পেয়ে তছিরও বাড়িতে ছুটে আসেন।

ভোলা সদর থানার (ওসি) মো. শাহীন ফকির জানান, এ ঘটনা জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরেও হতে পারে। তবে ঘটনার রহস্য উদঘাটনে জেলা পুলিশ, জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) ও সিআইডির টিম মাঠে কাজ করছে। পুলিশ আসা করছে খুব দ্রুতই এ ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা