1. admin@upokulbarta.news : admin :
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১০:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে ইভটিজিং বন্ধ করবেন সালেম হাওলাদার ভোলায় সাংবাদিক মহিউদ্দিনের উপর হামলায় গণমাধ্যমে নিন্দা-প্রতিবাদের ঝড় যৌতুকের দাবিতে পুত্রবধূকে মারধরের অভিযোগ শশুর শাশুড়ির বিরুদ্ধে মাছ শিকারে ২ মাসের নিষেধাজ্ঞা শুরু মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে গুরু -আঃ সামাদ ভোলার লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন শিক্ষার মানোন্নয়ন করতে চান চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ সেলিম নারীর গুণ – আঃ সামাদ দৌলতখানে যুব রেড ক্রিসেন্টে দলনেতা মাশরাফি উপ-নেতা ইমতিয়াজ ও রহিমা মোংলায় ৫ শতাধিক চক্ষু রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

ভোলার চর-সামাইয়ায় প্রতিবন্ধীকে নির্যাতনের অভিযোগ রহমান গংদের বিরুদ্ধে

সহকারী সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৭৮ বার পঠিত

আশিকুর রহমান শান্তঃ

ভোলা সদর উপজেলার চর-সামাইয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডে সিমা বেগম (৩০), ইউসুফ (১৬) নামের দুই শারীরিক প্রতিবন্ধীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় রহমান গংদের বিরুদ্ধে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মা সিমা বেগম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোর ইউসুফ কে মারধর করে গুরুতর আহত করেন স্থানীয় কাটা বাগান বাজারের পশ্চিম পাশের গোপাল বাড়ির বাসিন্দা মনির এর স্ত্রী পারভিন বেগম (২৮), দুলাল এর স্ত্রী ইয়াছমিন (৪০), রহমান এর স্ত্রী রুমা বেগম (৩২), রহিম এর স্ত্রী তাসলিমা (২৭)।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগীদের সূত্রে জানা, গত মঙ্গলবারে সিমা বেগম তার মাকে খাওন খোরাক না দেওয়ায় কারণ কি জানতে চান তার ভাবী পারভিন বেগম এর কাছে। একথা জিজ্ঞেস করার সাথে সাথে পারভিন বেগম উত্তেজিত হয়ে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সীমা বেগমকে এলোপাতাড়ি মারধর করেন। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সীমা বেগম কোন উপায়ান্তর না পেয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। ঠিক সেই সময় ইয়াসমিন তাসলিমা ও রুমা বেগম চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে তাকে বেধড়ক মার দরকার। মারধরের একপর্যায়ে তার ডাক চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে অভিযুক্তরা ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। তারপর থেকে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সীমা বেগম তার ঘরে ঠিকমতো ঘুমাতে পারছে না। বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারী) দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সীমা বেগমের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছেলে ইউসুফকে রাস্তায় পেয়ে রহমানের স্ত্রী রুমা বেগম এলোপাতাড়ি মারধর করেন। এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন প্রতিবন্ধী এই পরিবারটি।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি, ঘটলেও এ বিষয়ে আমি অবগত ন‌ই ।

ভোলা সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহীন ফকির বলেন,এ বিষয়ে কোন লিখিত অভিযোগ করেনি কেউ। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা