1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আদালত ঢোল পিটিয়ে জমি বুঝিয়ে দিলেও চলছে হামলা ও লুটপাট সাধারণ শিক্ষার্থী ও দলের কল্যাণে কাজ করতে চান ছাত্রনেতা বাচ্চু বিএনপির গণসমাবেশ উপলক্ষে মোহনপুরে লিফলেট বিতরণ ও প্রস্তুতি সভা ডুবে যাওয়া লাইটার মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে বন্দর কর্তৃপক্ষ! পটুয়াখালীর ২০ শিশু সাংবাদিক পেলো সনদপত্র জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে উপকুলীয় অঞ্চলের দরিদ্র মানুষের নিরাপদ খাবার পানি ও স্যানিটেশনের দূরবস্থা পটুয়াখালীর নতুন ডিসি জয়পুরহাটের ডিসি শরীফুল ইসলাম ভোলার দৌলতখানে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে যুবক নিখোঁজ; দুই কনস্টেবল বরখাস্ত ভোলায় ঢাকঢোল বাজিয়ে ব্রাজিল সমর্থকদের শোভাযাত্রা বিদেশী জাহাজের চোরাই মাল উদ্ধার করলো কোষ্টগার্ড

সিদ্ধিরগঞ্জে পাঠানটুলিতে কিশোর গ্যাং রাব্বী- আমান বাহিনীর তান্ডবে নীট কনসার্নের শ্রমিকরা দিশেহারা

উপকূল বার্তা ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৫ বার পঠিত
স্টাফ রিপোর্টারঃ
সিদ্ধিরগঞ্জে পাঠানটুলিতে মাদকাসক্ত কিশোর গ্যাং রাব্বী- আমান বাহিনীর তান্ডবে নীট কনসার্ন গ্রুপের শ্রমিকরা ও এলাকাবাসী আতঙ্কিত দিশেহারা।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায় যে সিদ্ধিরগঞ্জের  মিসির আলীর ছেলে রাব্বী ও কাল্লু ভূইয়ার ছেলে আমান দীর্ঘদিন যাবত পাঠানটুলি, ভোকেশনাল,এসি আই পানিরকল,কো- অপারেটিভ ও আজিম মার্কেট এলাকায় প্রভাবশালী নেতাদের ছত্র ছায়ায়  আধিপত্য বিস্তার করে স্কুল, কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীদের ইভটিজিং, ছিনতাই পকেটমার ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।
নীট কনসার্ন গ্রুপের কর্মরত শ্রমিক আঃ রহমান  বলেন প্রতিষ্ঠান থেকে ছুটি হলেই পিছু নেয় রাব্বী বাহিনী একদিন হঠাৎ আমাকে একটি মেয়ে ডাকছে পিছন থেকে তারপর তার কথা শোনতে গেলে পিছন থেকে ১০/১২ জনের একটি বাহিনী এসে ঘিরে ফেলে আমাকে তারপর পাঠানটুলি আব্বাসী মসজিদের সামনে একটি ৫ তলা ভবনে নিয়ে গিয়ে সারা শরিরে মারধর করে আমাকে আঃ রহমান  কান্না জড়িত কন্ঠে আরো বলেন মেয়ের সঙ্গে আমাকে খারাপ কাজ করতে বলে তারপর তাঁরা ভিডিও করবে, আমি কিছু করতে নারাজ হলে আমার এটিএম কার্ড নিয়ে যায় এবং পাসওয়ার্ড জেনে আমার একাউন্ট থেকে ২২ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয়। নীট কনসার্ন গ্রুপের আরো এক কর্মচারী নাম বলতে অনিচ্ছুক  তিনি বলেন আমার সাথে ও এমনটিই ঘটেছে গত মাস খানেক আগে সেলারির দিত্বীয় দিন আমাকে প্রতিষ্ঠানের সামনে বটতলা থেকে ওদের ১জন দিয়ে ডেকে নেয় তারপর সেই নতুন বিল্ডিংয়ের তৃতীয় তলায় উঠায় তারপর গালে থাপ্পড় ও ঘুসি মারতে থাকে আমার কাছে পঞ্চাশ হাজার টাকা দাবি করে টাকা না দিলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেন। আমি প্রানে বাঁচতে ও চাকুরী করতে হবে এই ভেবে ৩৫ হাজার টাকা দেই তারপর আমার কাছে থেকে ৩০ হাজার টাকা দামের  মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয়। এবিষয়ে প্রতিষ্ঠান কতৃপক্ষকে জানালে তারা বাহিরের ইস্যু বলে এড়িয়ে যায়।
নাম বলতে অনিচ্ছুক ওয়াশিং প্ল্যান্টের এক কর্মকর্তা বলেন আমার কিছু শ্রমিকের সাথে এমনটি ঘটেছে অবশেষে তারা চাকুরী ছেড়ে চলে গেছে, কর্মকর্তা আরো বলেন স্থানীয় কিশোর গ্যাংরা এভাবে করতে থাকলে প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা আতংকে দিশেহারা হয়ে প্রতিষ্ঠান ত্যাগ করবে এতে করে প্রতিষ্ঠানের বিশাল ক্ষয়ক্ষতি হবে, আমি নিরীহ মানুষ তাই সব কথা বলা সম্ভব ও না এই বলে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন।
এলাকাবাসী বলেন পাঠানটুলি এলাকা শিল্প প্রতিষ্ঠান থাকায় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা শ্রমিকদের সব ধরনের হয়রানি ও জিম্মি করে আতংকিত করে ফায়দা লুটছে এই মাদকাসক্ত  রাব্বী ও আমান বাহিনী। নাসিক
১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইফতেখার আলম খোকন বলেন বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক আমি খতিয়ে দেখছি কোন অপরাধীইকেই ছাড় দিবোনা।
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা