1. admin@upokulbarta.news : admin :
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৪:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
যুবক সজিবঃ যুবকদের অনুপ্রেরণা মানববন্ধন করে হয়রানি ও মানহানি করার প্রতিবাদে ভোলায় সংবাদ সম্মেলন ভোলার ভেদুরিয়ায় ভূমিদস্যু দুলাল বাউলীর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল স্পেটিং ক্লাবের উদ্বোধন উপলক্ষে ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত সিদ্ধিরগঞ্জে চুরির অপবাদ দিয়ে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর রেখে গাড়ি চালকের ক্ষতির চেষ্টা মেট্রোরেলের দ্বাদশ চালান নিয়ে মোংলা বন্দরে ট্রাম্প জাসদের ৫০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ভোলায় মশাল মিছিল দশমিনা উপজেলার সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকদের মধ্যে গিয়ার বিতরন অনুষ্ঠানে ২০২২ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশে সকল ধর্মের মানুষে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করছে-এমপি শাওন গানের শুরে নেশাকে না বলুন লালমোহনে মঞ্চ মাতালেন ডি আইজি আক্তারুজ্জামান

দেশের স্বার্থে ও মানুষের কল্যানে নদী দখল ও দুষন মুক্ত করতে হবে- নদী রক্ষা কমিশন

সহকারী সম্পাদক
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৪১ বার পঠিত

টি আই অশ্রুঃ

নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মনজুর আহমেদ চৌধুরী বলেছেন, দেশের স্বার্থে ও মানুষের কল্যানে মহামান্য হাই কোর্টের নির্দেশনা মোতাবেক নদী, খাল সমূহ দখল ও দুষন মুক্ত করতে সংশ্লিস্ট দপ্তর ও প্রতিষ্ঠানের সমন্বিত উদ্যোগ নিয়ে কাজ সম্পন্ন করতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি ৩-৭ সেপ্টম্বর পর্যন্ত পটুয়াখালী জেলাধীন লাউকাঠী নদী, লোহালীয়া নদী, হেতালীয়া নদী ও সুতাখালী খালসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে অবৈধ স্থাপনা পরিদর্শন করে ৭ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ১০ টায় পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক ও জেলা নদী রক্ষা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ ওবায়দুর রহমানের সঞ্চালনায় জেলা নদী রক্ষা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের অনুমতি ব্যতিত কোন নদী, খাল ভরাট করা যাবে না, তেমনি দখল ও দূষন করা যাবে না। নদী-খালের প্রবাহ অব্যাহত রাখতে হবে। এ প্রসঙ্গে নদী কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন পটুয়াখালী শহরের নবাবপাড়া খাল, পুরাতন হাসপাতাল সংলগ্ন খাল, সুতাখালী খাল, মেডিকেল কলেজের পশ্চিম পাশের খাল ও বিসিক শিল্প নগরী সংলগ্ন খালের পানি প্রবাহ উদ্ধার ও রক্ষা করতে জেলা প্রশাসক ও পৌর মেয়রসহ সংশ্লিস্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগনের প্রতি নির্দেশ দেন নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মনজুর আহমেদ চৌধুরী।
তিনি গত ৩ সেপ্টেম্বর হতে ৬ সেপ্টম্বর পর্যন্ত চারদিন পটুয়াখালীতে লাউকাঠী নদী, সুতাখালী খাল ও অন্যান্য খালের দখল এবং দূষন সরেজমিন পরিদর্শন ও কাগজপত্রাদি যাচাই-বাছাই করেন।
জেলা নদী রক্ষা কমিটির সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোঃ সাইদুল ইসলাম বিপিএম-পিপিএম, জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের পরিবেশবীদ মোঃ এনামুল হক, উপ-পরিচালক ( প্রশাসন ও অর্থ) ড. খ.ম কবিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ হুমায়ুন কবির, পৌরসভার মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ, সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার জান্নাত আরা নাহিদসহ বিভিন্ন সরকারী দপ্তরের প্রতিনিধি ও ব্যক্তিবর্গ।চেয়ারম্যানের সফর সঙ্গী হিসাবে ছিলেন চেয়ারম্যানের একান্ত সচিব মুঃ বিল্লাল হোসেন খান, সহকারী প্রধান (জি ও টেকনিক্যাল), সহকারী পরিচালক (গবেষনা ও পরিকল্পনা), সহকারী প্রধান (পরিবেশ ও প্রতিবেদক) মোঃ সাকিব মাহমুদ প্রমুখ।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা