1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

মিথ্যা তথ্য ছড়ানো যেমন অপরাধ, তেমনি অমানবিক; পটুয়াখালীর এসপি

সহকারী সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২২
  • ১৪৪ বার পঠিত

পটুয়াখালীঃ পটুয়াখালী জেলার নবাগত পুলিশ সুপার মোঃ সাইদুল ইসলাম বলেছন, গণমাধ্যম হল সমাজের দর্পণ। আমরা সবাই এই বিশ্বাস নিয়ে গণমাধ্যমের উপর আস্থা রেখে আসছি। সাংবাদিক ও পুলিশের দূরত্ব থাকা উচিত নয়। দূরত্ব থাকলে, সে গুলো ফেলে দিয়ে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নত ও সহযোগিতার মাধ্যমে কাজ করলে, একটি সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।

গণমাধ্যমের তথ্য হলো উন্মুক্ত, এখানে হিংসা, প্রতিহিংসা ও ব্যক্তিগত দন্ধের কারণে কারও বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করা যেমনি অপরাধ, তেমনি অমানবিক। একটা মিথ্যা তথ্যের কারণে, একটি ব্যক্তির জীবন, পরিবার অথবা সমাজ শেষ হয়ে যেতে পারে।

শনিবার (২৭ আগস্ট) বিকেলে পটুয়াখালী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জেলা পর্যায়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা চাই, আয়না যেমন মানুষের মুখমণ্ডল অবিকল প্রতিফলন দেখায়, তেমনি গণমাধ্যমও ভালো কে ভালো, মন্দকে মন্দ বলবে। এতে কারও উপকার, কারও ক্ষতি হবে। যে ভালো কাজ করবে, তাকে ভালো হিসেবে উপস্থাপন করা এবং অপরাধ অনিয়ম দুর্নীতি করে, তার নোংরা কাজকে হুবহুব উপস্থাপন করা উচিত। সাংবাদিকদের তথ্য অনেক শক্তিশালী হয়।

এছাড়াও মানুষের মধ্যে অপরাধী ভিতিও কাজ করে, পুলিশের প্রদান কাজের একটি হচ্ছে অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে এসে যথাযথ শাস্তি নিশ্চিত করা। তাহলেও মানুষের জীবন যাপন স্বাভাবিক হবে।

তিনি বলেন, পটুয়াখালীর সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের মনে পুলিশি ভীতি দূর করতে কাজ করবেন। পুলিশ একটি অন্যান্য সেবা দাতা সংস্থা হিসেবে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম। জেলাবাসীর জানমালের নিরাপত্তা, শান্তিশৃঙ্খলা ও সরকার কর্তৃক অর্পিত দায়িত্ব পালনে কোন ত্রুটি বিচ্যুতি দেখা দিলে, তার কাজের যথাযথ মূল্যায়ন ও গঠনমূলক সমালোচনা করার জন্য অনুরোধও করেন তিনি।

এছাড়া তিনি আরও বলেন, কোন ব্যক্তির ব্যক্তিগত জীবন ও সংগঠনের সাথে অথবা ব্যক্তি অপরাধ আড়াল করতে সাংবাদিক পেশাকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা উচিত নয়। ব্যক্তির দায় কখনও সংগঠন নিবে না। এতে পেশাজীবি সংগঠনের মূলনীতির সঙ্গে সাংঘর্ষিক হয়।
তবে যদি কেউ পেশাগত দায়িত্ব পালনে গিয়ে হামলা বা নির্যাতনের শিকার হন, তাহলে তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানো উচিত।

নবাগত পুলিশ সুপার মোঃ সাইদুল ইসলাম সভাপতিত্বে এই সভায় জেলা পর্যায়ে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিতডিয়াসহ সকল গণমাধ্যম কর্মীরা অংশগ্রহণ করে।

এসময় পটুয়াখালী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) আহমাদ মাঈনাল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল ইসলামসহ পুলিশ অফিসের কমকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৫ আগস্ট পূর্বের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহিদুল্লাহর অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি জনিত বদলিতে পরে জেলায় নতুন পুলিশ সুপার হিসেবে তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করে প্রথম কর্ম দিবসে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা