1. admin@upokulbarta.news : admin :
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৪:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
যুবক সজিবঃ যুবকদের অনুপ্রেরণা মানববন্ধন করে হয়রানি ও মানহানি করার প্রতিবাদে ভোলায় সংবাদ সম্মেলন ভোলার ভেদুরিয়ায় ভূমিদস্যু দুলাল বাউলীর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল স্পেটিং ক্লাবের উদ্বোধন উপলক্ষে ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত সিদ্ধিরগঞ্জে চুরির অপবাদ দিয়ে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর রেখে গাড়ি চালকের ক্ষতির চেষ্টা মেট্রোরেলের দ্বাদশ চালান নিয়ে মোংলা বন্দরে ট্রাম্প জাসদের ৫০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ভোলায় মশাল মিছিল দশমিনা উপজেলার সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকদের মধ্যে গিয়ার বিতরন অনুষ্ঠানে ২০২২ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশে সকল ধর্মের মানুষে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করছে-এমপি শাওন গানের শুরে নেশাকে না বলুন লালমোহনে মঞ্চ মাতালেন ডি আইজি আক্তারুজ্জামান

মনপুরায় লঘুচাপ ও পূর্ণিমার জ্যো’র প্রভাবে মেঘনার জোয়ারে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত

যুগ্ম সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২
  • ৩৬ বার পঠিত

সীমান্ত হেলাল, মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধি \
বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ, টানা বর্ষণ ও পূর্নিমার জ্যোর প্রভাবে মেঘনার জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়ে ভোলার মনপুরায় নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে মেঘনার পানির উচ্চতা বেড়ে উপজেলা শহর রক্ষা বাঁধের ৯১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এতে উপজেলার বেড়িবাঁধগুলোর বাহিরের বিভিন্ন অঞ্চল, চরাঞ্চল ও নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়ে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্ধি হয়ে পড়েছে। গত দুই দিন ধরে টানা বৃষ্টি ও জোয়ারের পানি জমে পানিবন্ধি থাকায় আতংকিত ও অসহায় হয়ে পড়েছে এসব অঞ্চলের বাসিন্দারা।

এদিকে মেঘনার পানির চাপে উপজেলা শহর রক্ষা বেড়িবাঁধের বিভিন্ন অংশে ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। যে কোন মুহুর্তে এসব গর্ত হওয়া অংশে ফাটল ধরে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, দুই দিনের ভারি বর্ষণ ও লঘুচাপের প্রভাবে মেঘনার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার হাজীর হাট ইউনিয়নের দাসের হাট এলাকা পানির নিচে তলিয়ে রয়েছে। টানা জলাবদ্ধতার কারনে পুরোপুরি পানিবন্ধি হয়ে রয়েছে এই এলাকার মানুষ। বেশিরভাগ বাড়ি ঘরে পানি প্রবেশ করায় রান্নার চুলা পানিতে ডুবে থাকায় রান্না না করতে পেরে খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে দাসের হাটের বাসিন্দারা। এছাড়াও হাজীর হাট ইউনিয়নের চর সামসুদ্দিন, সোনার চর, চর যতিন ও চর জ্ঞান গ্রামের নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়ে পানিবন্ধি হয়ে অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন বাসিন্দারা।

এছাড়াও উপজেলার ১ নং মনপুরা ইউনিয়নের চৌমহনী বাজার সংলগ্ন ঢাকার লঞ্চ ঘাট এলাকায় বেড়িবাঁধ কাটা থাকায় জোয়ারের পানি প্রবেশ করে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। জলাবদ্ধতার কারনে ঢাকাগামী যাত্রীরা অনায়াসে লঞ্চে না উঠতে পারায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এছাড়াও উপজেলার উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের মাস্টার হাট, লতাখালী, জনতাবাজার এলাকার নিম্মাঞ্চল ও বেড়ীবাঁধের বাহিরের এলাকা জোয়ারে প্লাবিত হয়েছে। এদিকে জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়ে উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নে অবস্থিত পর্যটন সম্ভাবনাময় মনপুরার সবচেয়ে আকর্ষনীয় পর্যটন স্পট “দখিনা হাওয়া সী বীচ” ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মেঘনার উত্তাল ঢেউয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সী বীচের অবকাঠামো ও বেড়ীবাঁধের বিভিন্ন অংশ।

এদিকে লঘুচাপ, টানা বর্ষণ ও পূণিমার জ্যোর প্রভাবে মেঘনার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার মূল ভূ-খন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন কলাতলির চর, ঢাল চর, কাজীর চর, বদনার চর, চর পাতালিয়া, চর পিওল, চর নিজাম ও চর সামসুদ্দিনে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বান্দিারা।

 

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা