1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু না হলে আমরা বাংলার ভূ-খণ্ড দেখতাম না-এমপি শাওন ধামগড় ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির ৯ নং ওয়ার্ড পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা শেখ হাসিনা ক্ষুধা ও দারিদ্র্মুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছেন- এমপি শাওন বরগুনা জেলার আমতলী থানা হতে র‌্যাবের হাতে ০১(এক)জন ইয়াবা ব্যবসায়ী গ্রেফতার। খুলনায় ‘উন্নয়নের সরণিতে পদ্মা সেতু’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শিক্ষিত জাতি গঠনে শিক্ষক সমাজের দায়িত্ব সর্বাধিক। ৭৫’ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর খুনিরাই আবার ষড়যন্ত্রে নেমেছে- এমপি শাওন পটুয়াখালীতে সাংবাদিকের উপরে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন। লালমোহনে লিজা নামের এক কিশোরী নববধূ আত্মহত্যা বোরাহানউদ্দীনে বাংলাদেশ ক্যারিয়ার অলিম্পিয়াডের ভোলা জেলা মিটিং সম্পন্ন।

ফের পটুয়াখালী জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক ড. আবদুল ওহাব মিয়া

সহকারী সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৫ জুন, ২০২২
  • ৬২ বার পঠিত

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২২ এ কলেজ পর্যায়ে আবার পটুয়াখালী জেলার শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষক হলেন পটুয়াখালী সরকারি মহিলা কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. আবদুল ওহাব মিয়া। শিক্ষা, গবেষণা, সহপাঠক্রমিক কার্যক্রমসহ শিক্ষার্থীদের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য তিনি এ মর্যাদা লাভ করেন।

২০১৯ সালেও তিনি জেলা ও বিভাগে শিক্ষকতায় শ্রেষ্ঠত্বের এ স্বীকৃতি অর্জন করেছিলেন। মেধাবী ও চৌকস এই শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা একজন শিক্ষার্থী বান্ধব, প্রাণবন্ত ও পরিশ্রমী ব্যক্তিত্ব হিসেবে পরিচিত। তিনি স্টুডেন্ট কাউন্সিলিং, গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের নীরব পৃষ্ঠপোষক হিসেবে কাজ করছেন। তিনি মোটিভেশনাল স্পিকার হিসেবেও পরিচিত। নৈতিকতাবোধসম্পন্ন যুগোপযোগী কর্মমুখী যুবপ্রজন্ম তৈরির প্রচেষ্টায় তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার তথা মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইনভিত্তিক কার্যক্রমে তার ভূমিকা অগ্রগণ্য। তার রয়েছে ‘ড. ওহাব মিয়ার ক্লাস’ নামে নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল। তিনি বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে জড়িত। ড. ওহাব একজন স্কাউটার। তিনি সাহিত্য ও সংস্কৃতি অনুরাগীও বটে। এক্ষেত্রে তিনি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের সর্বস্তরে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখেন। ড. ওহাব পটুয়াখালী পৌরসভার স্থায়ী বাসিন্দা।

ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি বিষয়ে তিনি আগ্রহী এবং এসব বিষয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও গবেষণা পত্রিকায় নিয়মিত লেখালেখি করেন। তার প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা দুইটি। জনাব ওহাব মিয়ার জন্ম ১ জুলাই ১৯৭৬ বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলাধীন গুলিশাখালী ইউনিয়নের কালিবাড়ি গ্রামে। তার পিতা এবিএম রফিকুল্লাহ শিক্ষকতা পেশায় জড়িত ছিলেন এবং নিজ গ্রামে একটি দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা। মাতা জামিনা বেগম একজন গৃহিনী। উচ্চ শিক্ষায় আলোকিত পরিবারে ছয় ভাই বোনের মধ্যে জনাব ওহাব দ্বিতীয়। ড. ওহাব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্সসহ মাস্টার্স সম্পন্ন করেন ১৯৯৯ সালে। তিনি ২৬তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ২০০৬ সালে শিক্ষা ক্যাডারে যোগদান করেন। ২০১৩ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএস থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। ২০১৭ সালে পদোন্নতি ও পদায়ন প্রাপ্ত হয়ে পটুয়াখালী সরকারি মহিলা কলেজে যোগদান করে অদ্যাবধি এই কলেজেই কর্মরত আছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা