1. admin@upokulbarta.news : admin :
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ডর্‌প ও ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ওয়াশ এবং জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত বন্দরে প্যালিয়েটিভ কেয়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে নেটওয়ার্কিং সভা অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় এক শিক্ষকসহ ১৭ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার ব্যাংকে জমি বন্ধক রেখে ঋন, বন্ধকী জমি বিক্রয়ে গ্রাহক ও ম্যানেজারের প্রতারনা চরফ্যাশন উপজেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট কমিটি গঠন যৌন হয়রানি করে প্রধান শিক্ষক জেলে বরখাস্ত করেনি সভাপতি নেতা মুজিব -আঃ সামাদ ভোলায় নারী নেটওয়ার্কিং কমিটির সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত ফকিরহাটে মিনি ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফকিরহাটে কৃষি ব্যাংকে গ্রাহক সেবা উন্নয়নে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

বোরহানউদ্দিনে ছেলে কর্তৃক মাকে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১২ জুন, ২০২২
  • ১১৬ বার পঠিত

জেএম.মমিন, (বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি):

নিজের আপন ছেলে কর্তৃক নির্যাতেনের স্বীকার হয়েছে ভোলার বোরহানউদ্দিনের মৃত চাঁন মিয়া চৌকিদারের বিধবা স্ত্রী রহিমা (৭৫) । গত ৪ জুন উপজেলার সাচড়া ইউনিয়নের বাথান বাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার ৬দিন পর গত ১০ জুন সন্ধ্যায় নির্যাতনের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। প্রতিবেশী মোহাম্মাদ আলী, আকবর, সফর মুল্লক চৌকিদার, ফাতেমা বেগম, জানায়, ৪ জুন সকালে রহিমার একমাত্র ছেলে ফজলুর স্ত্রীর সাথে তার ঝগড়া হয়। এর জেরে তার ছেলে তাকে ঘর থেকে মারতে মারতে বাড়ীর উঠানে নিয়ে আসে। এবং গলায় ধাক্কা দিয়ে কয়েকবার মাটিতে ফেলে দেয়। উঠে দাড়ালে পূনরায় গলা ধাক্কা দিতে দিতে বাড়ী থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনার একদিন পর তার ছেলে ঢাকায় চলে যায়।

প্রতিবেশীরা আরো জানায়, প্রায় সময়ই তার ছেলে তাকে এমন মারধর করেন । আমরা প্রতিবাদ করলে তার ছেলে আমাদের সাথে ঝগড়া করে এবং মামলার হুমকি দেয় । এই ঘটনার ভিডিও ধারণ করেন, পাশের ঘরের কামাল নামে এক যুবক। এবং ইমরুল হাসান নামে এক ব্যাক্তির ফেসবুক আইডি থেকে ভিডিওটি আপলোড দেওয়ার সাথে সাথে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওটি সবার মনে কম্পন সৃষ্টি করে। নির্যাতনের ভিডিওটি প্রশাসনের নজরে আসলে ১১ জুন সকালে ঘটনাটি জানার জন্য ওই বাড়ীতে দুই পুলিশ সদস্য যান।

এসময় ঘটনার কথা স্বীকার করে তার বৃদ্ধা রহিমা বলেন, ও আমার একমাত্র ছেলে । ওর বাবা ৭ বছর পূর্বে মারা গেছে। আমি ছেলের টা খেয়ে বাঁচি । সে আমাকে মারছে আবার পায়ে ধরে ক্ষমা চেয়ে নিছে । তার বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নেই । ওই ওয়ার্ডে সাবেক ইউপি সদস্য জাহিদুল হাসান জামাল বলেন, তার ছেলে ফজলু চৌকিদার আগে থেকেই এমন বেপরোয়া। আমি মেম্বার থাকা অবস্থায় আরো কয়েকবার এমন ঘটনার বিচার করেছি। বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার্স ইনচার্জ শাহীন ফকির জানান, তার মায়ের কোনো অভিযোগ না থাকায় তার ছেলের বিরুদ্ধে আইনগত কোনো ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা