1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু না হলে আমরা বাংলার ভূ-খণ্ড দেখতাম না-এমপি শাওন ধামগড় ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির ৯ নং ওয়ার্ড পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা শেখ হাসিনা ক্ষুধা ও দারিদ্র্মুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছেন- এমপি শাওন বরগুনা জেলার আমতলী থানা হতে র‌্যাবের হাতে ০১(এক)জন ইয়াবা ব্যবসায়ী গ্রেফতার। খুলনায় ‘উন্নয়নের সরণিতে পদ্মা সেতু’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শিক্ষিত জাতি গঠনে শিক্ষক সমাজের দায়িত্ব সর্বাধিক। ৭৫’ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর খুনিরাই আবার ষড়যন্ত্রে নেমেছে- এমপি শাওন পটুয়াখালীতে সাংবাদিকের উপরে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন। লালমোহনে লিজা নামের এক কিশোরী নববধূ আত্মহত্যা বোরাহানউদ্দীনে বাংলাদেশ ক্যারিয়ার অলিম্পিয়াডের ভোলা জেলা মিটিং সম্পন্ন।

মোংলা বন্দরে “ভিটিএমআইএস” উদ্বোধন করলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সহকারী সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৬ মার্চ, ২০২২
  • ৫৩ বার পঠিত

বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

মোংলা বন্দর বাংলাদেশের দ্বিতীয় সমুদ্র বন্দর, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে বঙ্গোপসাগর থেকে প্রায় ১৩১ কিলোমিটার উজানে অবস্থিত। নিরাপদ নেভিগেশন সুবিধা এবং বিদেশী জাহাজের দীর্ঘ চ্যানেলে নিরাপত্তা প্রদানের জন্য অতিতে একাধিকবার গবেষণা করা হয়েছে। নিরাপদ ও নির্বিঘ্নে জাহাজ চলাচলের জন্য ভেসেল ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেম “ভিটিএমআইএস” শিরোনামে প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করেছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ।

প্রকল্পটির কাজ ৩০ ডিসেম্বর, ২০২১ তারিখে শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে এবং বর্তমানে ভিটিএমআইএস চালু আছে। মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) বেলা ৪ টায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী খালিদ চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভেসেল ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেম “ভিটিএমআইএস”প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন করেন।

মোংলা বন্দরকে আধুনিকায়ন, বন্দর সীমানায় আগত সমুদ্রগামী জাহাজসমূহ মনিটরিং করাসহ দক্ষতার সাথে হ্যান্ডলিং করার মাধ্যমে প্রদত্ত সেবার মান উন্নীত করা, বন্দরে আগমন ও নির্গমনকারী সকল জাহাজের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, চ্যানেলের নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ, দূর্ঘটনাকবলিত পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সহায়তা এবং দূর্ঘটানা পরবর্তীতে তদন্তকরণ ও তদানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণসহ জাহাজ সমূহের গতিবিধি মনিটরিং করার লক্ষ্যে ইলা মিউ কনভেনশনের আলোকে এসটান্ড্যার্ড ভলটেজ ১২৮ অনুযায়ী ইন্টারন্যাশনাল পোর্ট সিকিউরিটি কোড ইমপ্লেমেন্ট করা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের ফলে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ হারবাড়িয়া এ্যাংকরেজে ১০ মিটারের বেশি ড্রাফ্টযুক্ত জাহাজগুলি পরিচালনা করছে।

গত কয়েক বছরে মোংলা বন্দরে জাহাজ আগমনের রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। চট্রগ্রাম বন্দরে প্রচন্ড যানজটের কারণে বন্দর ব্যবহারকারীদের মোংলা বন্দরের প্রতি আগ্রহ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। পদ্মা সেতু, খুলনা-মোংলা রেললাইন, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র ও খান জাহান আলী বিমান বন্দর চালু হলেই মোংলা বন্দরে আমদান-রপ্তানি আরো ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা