1. admin@upokulbarta.news : admin :
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভেদুরিয়া চরকালী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফান্ডের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে ভেদুরিয়ায় নবগঠিত ইউনিয়ন কমিটির আনন্দ মিছিলে দুষ্কৃতিকারীদের অতর্কিত হামলার অভিযোগ লালমোহনে স্বামী কর্তৃক স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ আরডিএ’র নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ২শ ৬ কোটি টাকার কাজে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুস্থ স্বাস্থ্যের জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে হবে সিদ্ধিরগঞ্জ,চৌধুরী বাড়ী বাইতুল মা’মুর জামে মসজিদের পুনঃনির্মান ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন মোহনপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী ও মহান বিজয় দিবস উদযাপনে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত পটুয়াখালীতে স্কুল ঝড়ে পড়া ১৭ হাজার শিশুদের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু জেলে পরিবারের নারীদের অধিকার আদায়ে ভোলায় নেটওয়ার্কিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত রাস্তা কেটে বরযাত্রীকে আটকে দেওয়া আলোচিত সেই মেম্বার এর নেতৃত্বে জমি দখলের অভিযোগ, সংঘর্ষ, আহত-১

মনপুরায় মুক্তিপণে ছাড়া পেলো ৭ জেলে

যুগ্ম সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৭৮ বার পঠিত

সীমান্ত হেলাল, মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধি \

ভোলার মনপুরায় জলদস্যুদেরকে মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলো ৭ জেলে। প্রায় ১৮ ঘন্টা বন্দি থাকার পর ১ লক্ষ ৯৩ হাজার টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলো এসব জেলেরা। হাতিয়ার কুখ্যাত জলদস্যু মহিউদ্দিন বাহিনী অপরহরন করে নিয়ে যায় বলে জানায় জেলেরা।

মুক্তিপণ পেয়ে শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) সন্ধা ৭ টায় পাশর্^বর্তি হাতিয়া উপজেলার বিচ্ছিন্ন এক চরে আটক অবস্থা থেকে জেলেদেরকে মুক্তি দেয় জলদস্যুরা।

মুক্তিপণে ছাড়া পাওয়া জেলেরা হলেন, বাবুল (৩০), রিয়াজ (৩২), ইসমাইল মাঝী (৪৫), সোহেল (৩৪), সোহেল মুন্সি (৩০), বাসেদ মাঝী (৪৫) ও জাহাঙ্গীর (২৮)। অপহৃত সাত জন সাতটি নৌকার মালিক ও মাঝী। এদের প্রত্যেকের বাড়ি মনপুরা উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয় ইউনিয়নের রহমানপুর গ্রামে।

মুক্তিপণে ছাড়া পাওয়া জেলেরা মুঠোফোনে জানান, ১৮ ফেব্রæয়ারী দিবাগত রাতে দেড় টায় মনপুরার দক্ষিনে অবস্থিত চর পিয়াল ও চর পাতালিয়া সংলগ্ন মেঘনায় তারা ইলিশ মাছ ধরছিলো। এসময় হাতিয়ার জলদস্যু মহিউদ্দিন বাহিনী তাদেরকে ঘিরে ফেলে। এবং মাছধরা অবস্থায় মনপুরার সাতটি জেলে নৌকা থেকে ৭ জেলে ও একটি মাছধরা নৌকা অপহরন করে তাদের আস্তানায় নিয়ে যায়। পরে অপহৃতদের পরিবারের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জনপ্রতি ৫০ হাজার টাকা করে মুক্তিপণ দাবী করে। জেলেদের অপহরনের বিষয়টি জানাজানি হলে মনপুরার এসব জেলেদের আড়তদার মোঃ আব্দুস সাত্তার বিকাশের মাধ্যমে ১ লক্ষ ৯৩ হাজার টাকা জলদস্যুদের কাছে পাঠান। মুক্তিপণ পেয়ে শনিবার (১৯ ফেব্রয়ারী) সন্ধা ৭ সাত জলদস্যুরা অপহৃত জেলেদের ছেড়ে দেয়। মুক্তি পাওয়া জেলেরা মনপুরায় ফেরার পথে ফের হাতিয়ার কোস্টগার্ডের হাতে আটক হন। পরে রোববার (২০ ফেব্রæয়ারী) সকালে জেলেদের অভিভাবকগন হাতিয়ায় পৌছালে কোস্টগার্ড জেলেদেরকে মনপুরা পাঠানোর ব্যবস্থা করে বলে জানান জেলেরা।

আড়তদার আব্দুস সাত্তার জানান, মুক্তিপণে ছাড়া পাওয়া ৭ জেলে মনপুরায় ফিরে আসলে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হবে।

এব্যাপারে মনপুরা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদ আহম্মেদ জানান, জেলেরা অপহরনের ব্যাপারে জেনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা