1. admin@upokulbarta.news : admin :
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন

বোরহানউদ্দীনে একজন মানবিক পুলিশ জীবন মাহমুদ

মোঃ আওলাদ হোসেন
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২২
  • ১৮৭ বার পঠিত

 উপজেলা প্রতিনিধি, দৌলতখান।

“মানুষ দেখতে মানুষ আসে, বিরুদ্ধতার ভীড় বাড়ায়। তুমিও মানুষ আমিও মানুষ,তফাৎ শুধু শির দাঁড়ায়। মানুষ মানুষের জন্য,

জীবন জীবনের জন্য।আমাদের সমাজে অনেক বিত্তবান রয়েছে যারা নিজেদের আখের গোছানোর কাজেই সব সময় ব্যাস্ত থাকে।বিত্তবানরা যদি অসহায়দের পাশে থাকত তাহলে এদেশে কোন অসহায় লোক থাকতো না।সমাজের এহেন পরিস্থিতির মধ্যেও বেঁচে আছে বহু মানবিক মানব।যাদের চিন্তাই থাকে কিভাবে অসাহায়দের সেবা করা যায়।এমনই একজন মানব সেবক ভোলা জেলার বোরহানউদ্দীন উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের দফাদার বাড়ীর শাহাবুদ্দীনের ছেলে মোঃ জীবন মাহমুদ।যিনি পেশায় একজন পুলিশ।

যখন যেখানে অসহায় কারো খোঁজ পান, তখন চেস্টা করেন কিভাবে সাহায্য করা যায়। এই পর্যন্ত কাকে কিভাবে সাহায্য করা হয়েছিলো জানতে চাইলে জীবন মাহমুদ জানান, আমি জীবন মাহমুদ করোনার প্রথম থেকে শুরু করে প্রায় ১৫০ জনের মতো অসহায় মানুষকে ১ মাসের বাজার করে দিয়েছি। ব্লাড বিষয়ে যখন যে ব্লাড চেয়েছে নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে ম্যানেজ করে দিয়েছি।ভাসমান (রাস্তা শুয়ে থাকা) এমন মানুষ গুলোকে এক টানা ১ মাস রাতের খাবার দিয়েছি।যারা মানসিক অসুস্থ (পাগল)তাদের কে ও খাবার দিয়েছি মোট ১০ জন লোকের কর্ম সংস্থান করে দিয়েছি। ৩ টি হুইল চেয়ার ও ৪ জন অসহায় কে ৪ টি ঘর করে দিয়েছি। ২৫ জন অসহায় রোগীর চিকিৎসার দ্বায়িত্ব নিয়ে সম্পুর্ন সুস্থ করে দিয়েছি এবং এর ভিতর একজন মারা গিয়েছে, তখন খুব খারাপ লেগেছিলো। ৩ জন অসহায় লোক রাস্তা শুয়ে থাকা তাদের পরিবারের কাছে পৌঁছে দিয়েছি।

এলাকার মানুষের জন্য টেলিমেডিসিন সেবা ও বিনা মূলে কোরআন শরিফ ও কাপনের কাপর দেওয়া হয়। ২ টি মসজিদ মাদ্রাসার জন্য সিমেন্ট ও ইট দেওয়া হয়।৮ জন এতিম এর সম্পুর্ন পড়ালেখা করার দায়িত্ব নিয়েছি।আমার দায়িত্বে ২ জন বৃদ্ধ কে প্রতি মাসে বাজার দেয়া হয়। এই শীতে ১০০ অসহায় মানুষ কে কম্বল দেওয়া হয় এবং ২৫০ জন লোক কে শীতের হুডি কিনে দিয়েছি। উক্ত কাজ গুলো আমার ব্যাক্তিগত ভাবে করা আমার ফেসবুক আইডির মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ এবং আমার নিজের বেতনের অর্থ থেকে সেবা দেওয়া হয়। নিজ ডিউটির বাহিরেও শেরেবাংলা হাসপাতালে অসহায় রোগীদের পাশে থাকি।লন্ছ দূর্ঘটনায় আহত দের ও পাশে ছিলাম। এরকম অনেক উদাহরন তিনি সৃষ্টি করেছেন।এই ধরনের সাহায্য কি উদ্যেশ্যে করেন,এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি একজন মানুষ আর অসাহায় মানুষকে সাহায্য করা এটা আমার বিবেক করতে বলে।তাছাড়া অসহায় মানুষের একটু সহায় হতে পারলে আমার খুব ভালো লাগে।

তিনি সমাজে বিত্তবানদের উদ্যেশ্যে বলেন,আমি চাই বিত্তবানরা যেন অসহায়দের ডাকে সাড়া দিয়ে সামার্থ্য অনুযায়ী সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয়।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা