1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে পথসভা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে গরীব-দুখী মানুষের সুবিধা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি মোশারফ হোসেনের ভোলায় কিশোর গ্যাংয়ের হাতে হত্যার ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা মোংলায় তলা ফেটে দুর্ঘটনার কবলে কয়লা বোঝাই লাইটার লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হলে ইভটিজিং বন্ধের ঘোষনা চেয়ারম্যান প্রার্থী শাজাহান বেপারীর ফকিরহাটে তপন স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টে বিসমিল্লাহ ফিড মিলস লিমিটেড চ্যম্পিয়ন ফকিরহাটে চব্বিশ কেজি গাঁজা ও ৩৬০ পিস ইয়াবাসহ চার মাদক কারবারি গ্রেপ্তার স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা কাজী মোখতারের সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছেন রবিন চৌধুরী ভোলার আলোচিত মাদক কারবারি বিয়ারসহ আটক ডর্‌প ও ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ওয়াশ এবং জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত

কুমিল্লা ছাত্রীর হিজাব কেটে দেওয়ায় নার্সিং কলেজের তালা

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ২৭ বার পঠিত

কুমিল্লা নার্সিং ও মিডওয়াইফারী কলেজের শিক্ষার্থীর হিজাব কেটে দেওয়ার অভিযোগে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছে ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নেমেছে। এক পর্যায়ে তারা কলেজের ৬ শিক্ষককে কক্ষে আটকে রেখে বাইরে থেকে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এরপর শুরু করে বিক্ষোভ। এসময় তাদের স্লোগানে উত্তাল হয়ে উঠে কলেজ প্রাঙ্গণ।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ সংলগ্ন কুমিল্লা নার্সিং কলেজের ২য় বর্ষের এক শিক্ষার্থীর হিজাব কেটে দেন কলেজেরই একজন শিক্ষক। এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পরদিন কলেজ প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। তারা এ ঘটনার প্রতিবাদে ৬ শিক্ষকসহ কলেজের গেটে তালা ঝুলিয়ে আন্দোলন করেন। এ সময় অন্যান্য শিক্ষকরাও কলেজে উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছে হিজাব পরার ঘটনাকে কেন্দ্র করে তারা কুমিল্লা নার্সিং ও মিডওয়াইফারী কলেজে তালা দিয়েছেন। তারা আন্দোলনের সময় শিক্ষকদের তালা দিয়ে আন্দোলন করেছেন। শিক্ষার্থীরা আরও জানান, হিজাব কাটা অন্যায়। মুসলিম প্রধান দেশে এ ঘটনা জঘন্যতম অন্যায়। কেন মেডাম হিজাব কেটেছে তার সঠিক বিচার চান।

কলেজের প্রিন্সিপাল জানান, বিষয়টি একটি অপরাধ। আমি ছাত্রছাত্রীদের পক্ষে আছি। আমি উপর মহলে প্রতিবেদন পাঠিয়েছি। তারা যা সিদ্ধান্ত দিবে সে অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা