1. admin@upokulbarta.news : admin :
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন শিক্ষার মানোন্নয়ন করতে চান চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ সেলিম নারীর গুণ – আঃ সামাদ দৌলতখানে যুব রেড ক্রিসেন্টে দলনেতা মাশরাফি উপ-নেতা ইমতিয়াজ ও রহিমা মোংলায় ৫ শতাধিক চক্ষু রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান শরণখোলা ও মোরেলগঞ্জে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের জনসচেতনতা ও বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান দখল-দূষণে অস্তিত্ব সংকটে ঠাকুরানী খাল পরিচ্ছন্ন অভিযানে পৌর মেয়র আ. রহমান জনপ্রিয়তার শীর্ষে ও প্রচারণায় এগিয়ে সাবেক মেয়র ডাঃ শফিক ফকিরহাটে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত ভোলায় ৬ বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতালে সিলগালা আমি আপনাদের ভালোবাসার কাছে ঋণী- কেসিসি মেয়র আ: খালেক

পূর্ব ইলিশায় বিজয়ী মেম্বারপ্রার্থীর বাড়িতে হামলা, আহত ৩০

ভোলা প্রতিনিধি ॥
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জানুয়ারি, ২০২২
  • ১৫৮ বার পঠিত
ভোলায় নির্বাচনে হেরে বিজয়ী ইউপি সদস্যসহ তার সমর্থকদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ৩০জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের তুলাতুলি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিজয়ী ইউপি সদস্য মো. কামাল হোসেন লিটন শিকদার বলেন, ৫ জানুয়ারি (বুধবার) নির্বাচনে মোরগ প্রতীক নিয়ে ১৬১ ভোটে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হই।
ফলাফল ঘোষণার পর থেকে পরাজিত প্রার্থী (ফুটবল) প্রতীকের মো. শাহে আলম সিকদার তার সমর্থকরা আমাদের নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। বিজয়ের পরে বৃহস্পতিবার সকালে ওই ওয়ার্ডের তুলাতুলি এলাকার করিম আলী সিকদার বাড়ির সামনে সমর্থকদের সঙ্গে দেখা করতে গেলে মো. শাহে আলম সিকদার নেতৃত্বে ইমন, এমরান, মোজাম্মেল শিকদার, শাহিন, রুবেল, নাছির, জাহিদ, তামিমসহ একদল ক্যাডার বাহিনী হামলা চালায়। লোকজন হামলা চালায়। এরপর থেকে যারে যেখানে পেয়েছে সেখানেই পিটিয়েছেন। আমার সমর্থক ইমতিয়াজের দোকান লুটপাট করে নগদ ১০ হাজার নিয়ে গেছেন, আমার বাড়ির সামনে কাচারি ঘর ভাংচুর করে আগুন দিয়েছেন। বাড়ির সামনে বোমাবাজি করেছে।
এতে আমাদের আলাউদ্দিন সিকদার, আলমগীর সিকদার, রুবলে সিকদার, ইমতিয়াজ, লিমন, বিল্লাল, মাইনুদ্দিন, সালমান সিকদার, আকলিমা লিমন, জান্নাত বিল্লাল, মাসুম সিকদার, কামাল চৌকিদার, সাকিব চৌকিদার, কামরুল, ফারুক, আকলিমা, জাহানারা বেগম সহ প্রায় ২০জন আহত হয়েছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে পরাজিত ইউপি সদস্য প্রার্থী মো. শাহ আলম বলেন, ‘বিজয়ী হয়ে তারা আমার লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছে। প্রতিপক্ষের হামলায় আমার ১০ জন আহত হয়েছেন। ইলিশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. ফরিদ শেখ বলেন, ‘পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। তবে এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা