1. admin@upokulbarta.news : admin :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শেখ হাসিনা’র জন্য ঘষিয়াখালী ক্যানেল সুন্দরভাবে চলছে- সিটি মেয়র আ. খালেক দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না- মেয়র শেখ আ. রহমান ভোলায় রওশন আরা ও রাব্বী হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা কালীপদ রায়কে গার্ড অব অনার বন্দরে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে প্যালিয়েটিভ কেয়ার বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ‘মিডওয়াইফ পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা’ প্রকল্পের সমাপনী ও লার্নিং শেয়ারিং কর্মশালা সিদ্ধিরগঞ্জে তাঁতখানা এ্যাথলেটিক্স ক্লাবের উদ্যোগে, শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সিজন (১) ২০২৪ উদ্বোধন হয়েছে বাইউস্ট ট্রাস মাস্টার অনুষ্ঠিত পথ হারিয়ে ৯৯৯ এ ফোন, ৩১ পর্যটককে উদ্ধার করল পুলিশ আজ পবিত্র শবেবরাত

ভোলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত-৪,থানায় অভিযোগ,আটক -১

সহকারী প্রকাশক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৪১ বার পঠিত

ভোলা প্রতিনিধিঃ

ভোলা পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের পৌর আলগী ইয়াছিন ডিলার বাড়িতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের নারী সহ ৪ জন আহত হয়েছে। আহত শেখ ফরিদ ওরফে শিবলু (৪৫), শেখ কামাল ওরফে শামীম (৪০) তাসলিমা খাতুন (৩৫) ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহত নুরজাহান বেগম কে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে রাখা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল ১০ টা ৩০ মিনিটের সময় ভোলা পৌরসভার পৌর আলগীতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২৯ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধের জেরে আদালতে ১৪৪/১৪৫ ধারায় এম.পি- ৬৫৮/২২ নং একটি মামলা চলমান রয়েছে। সেই মামলার তদন্ত করার জন্য তদন্তকারী ভোলা সদর ভূমি অফিসের ভূমি তশিলদার খলিলুর রহমান ঘটনা স্থলে গিয়ে তদন্ত করার সময় প্রতিপক্ষ নুর মোহাম্মদ লুতু, জিতু, রাজু, শাকিল, সাগর, আবুল কাশেম, নিশাত ও নাছির আহমেদ শিবলু’র পরিবারের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। শিবলু ও তার পরিবারের সদস্যদের পিটিয়ে গুরুতর আহত করে মাটিতে ফেলে রাখা অভিযোগ পাওয়া যায়।

আহত শেখ ফরিদ বলেন আমার বাবা ১৯৮৮ সালে একশ এক শতাংশ জমি ক্রয় করে। সে থেকে আজ পর্যন্ত আমরা সেই জমি ভোগ দখলে আছি। এ জমি নিয়ে আমাদের সাথে স্থানীয় একজনের বিরোধ সৃষ্টি হয়। আমরা সেই বিরোধ মিটিয়ে ফেলি। এর মধ্যে আমার বাবা মারা যায়। সেই বিরোধ কে কেন্দ্র করে তৃতীয় পক্ষ নুর মোহাম্মদ লুতু গংরা আমাদের জমি দখলের জন্য একে একে কয়েকবার পায়তারা চালায়। বাধ্য হয়ে আমি আদালতে ১৪৪/১৪৫ ধারায় মামলা করি। সেই মামলার তদন্ত চলাকালীন সময় তারা আমি ও আমার পরিবারের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

আহত তাসলিমা খাতুন বলেন, আমার শশুর মারা যাওয়ার পর থেকে নুর মোহাম্মদ লুতু ও রাজু গংরা আমাদের সেই জমি জোড় করে দখল করার জন্য চেষ্টা করে। আমরা আদালত করলে সেই মামলার তদন্ত করতে আসলে তারা আমাদের উপর হামলা চালায়। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

এ বিষয়ে তশিলদার খলিলুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি তদন্তের জন্য ঘটনা স্থলে গিয়েছিলেন। সেখানে উভয় পক্ষের কথার কাটাকাটি শুরু হয়। বাধ্য হয়ে আমি সেখান থেকে চলে আসি, তারপর কি হয়েছে আমি আর জানিনা।

অভিযুক্ত রাজুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জমি নিয়ে পুরনো বিরোধ রয়েছে। আজকে তদন্ত গেলে সেখানে কথার কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারামারি। উক্ত মারামারি তে তাদেরও আমাদের উভয় পক্ষের লোকই আহত হয়।

এ বিষয়ে ভোলা সদর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মনির মিয়া বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত এজাহার পেয়েছি। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে শাকিল নামে একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে থানা পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা