1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:১১ অপরাহ্ন

বোরহানউদ্দিনে কুকুরের কামড়ে আহত- ২০, সতর্ক থাকতে এলাকায় মাইকিং

স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩১১ বার পঠিত

ভোলার বোরহানউদ্দিনে পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশু, নারী ও বৃদ্ধ সহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন ৷

গত শুক্র ও শনিবার ২ দিনে উপজেলার কাঁচিয়া, পক্ষিয়া, ছাগলা এবং কুতুবা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় এমন ঘটনা ঘটে। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন পুরো এলাকাবাসী ৷

আহতরা হলেন পক্ষিয়া ইউনিয়নের মোঃ ঈসমাইল হোসেন (৯), মরিয়ম বেগম(৪), কাচিয়া ইউনিয়নের ওমর ফারুক (৩), মাহিমা(২৫), মসির(৩৫), ফাতেমা(৪০), সুফিয়া(৬০), সাহীনুর(৬), সামসল ইসলাম(৩০), সারমিন(১৩), ইয়াসমিন, জোবায়ের ও আব্দুল্লাহ সহ আরো কয়েকজন ৷

কাচিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ঈসমাইল হোসেন, ফারাবী ও আব্দুল সাত্তার মিয়া জানান, গত কয়েকদিনে ৩টি পাগলা কুকুরে  বিভিন্ন বয়সের প্রায় ৪০-৫০ জনকে মানুষকে কামড়িয়েছে । তারা আরো জানান, কুকুরের কামড় থেকে বাঁচতে এবং সাধারণ মানুষদের সতর্ক করতে সেচ্ছাসেবীদের উদ্যোগে বাজারে বাজারে মাইকিং করা হচ্ছে ৷

এদিকে বেওয়ারিশ এসব কুকুর নিধনে কোনো উদ্যোগ না থাকায় এলাকার কিছু মানুষ কুকুরের কামড় থেকে বাচঁতে ও পাগলা কুকুরকে তাড়া করতে রাস্তায় রাস্তায় লাঠি নিয়ে ঘুড়তে দেখা যাচ্ছে৷

কুতুবা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান জোবায়ের, কাচিয়া ইউনিয়নের আব্দুর রব কাজী, পক্ষিয়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান  হুমায়ুন কবির বলেন, গ্রাম পুলিশ সদস্যদের দিয়ে ইউনিয়নবাসীকে সতর্ক করা সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপসহকারী মেডিকেল অফিসার ডঃ মোঃ আবুল কালাম আজাদ  এবং আরএমও  ডাঃ মোঃ তারেক জানান, গত শুক্র ও শনিবার দুই দিনে কুকুরের কামড়ে আহত হয়ে প্রায় ২০ জনের অধিক রোগী বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নিয়েছেন ও ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে কিছু আশঙ্কাজনক রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে ও ঢাকায় পাঠানো হয়েছে ৷

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রায়হান উজ্জামান জানান, এবিষয়ে আমরা অবগত রয়েছি ৷ হঠাৎ করে  উপদ্রব  বেড়ে যাওয়ায় এবং পর্যাপ্ত  কুকুর ধরার যন্ত্রংশ না থাকায় এখনই নিয়ন্ত্রণ আনা যাচ্ছে না ৷ তবে যে সকল ইউনিয়নে কুকুরের উপদ্রব বেড়ে গেছে সেই সকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদেরকে অবহিত করা হয়েছে ওবং গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের সতর্ক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ৷

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা