1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৫:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উপজেলা নির্বাচনে নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচন: সুখেদুঃখে মানুষের পাশে থাকবেন সংরক্ষিত সদস্য প্রার্থী “নাসিমা” হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জমে উঠেছে ভোলার ৩ উপজেলা নির্বাচন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও বীরমুক্তিযোদ্ধা সালাউদ্দিন আহমাদ’র ৩৯ তম মৃত্যুবার্ষিকী ফকিরহাটে আনারস প্রতীকের নির্বাচনী জনসভা জনসমূদ্রে পরিনত বোরহানউদ্দিনে ভোটারকে টাকা দেয়ার ছবি ভাইরাল, ক্ষমা চেয়েছে চেয়ারম্যান মা রান্নার কাজে ব্যস্ত, ঘরে বিদ্যুৎষ্পৃষ্ট হয়ে প্রাণ গেল একমাত্র সন্তানের ভোলার নির্বাচন হবে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য- কমিশনার আহসান হাবিব সাতক্ষীরার তালায় ট্রাক উল্টে ২ শ্রমিক নিহত আহত ৭ লালমোহনে দুদকের উদ্যোগে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

চারঘাটে স্ত্রীকে তালাক দেয়ায় স্বামীর বাড়িতে হামলা ও লুটপাট

সহকারী সম্পাদক
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৬৫ বার পঠিত

রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীতে স্ত্রীকে স্বামী তালাক দেওয়ায় স্ত্রী কতৃক হামলা ও লুটপাট চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২৪ অক্টোবর (মঙ্গলাবার) জেলার চারঘাট উপজেলার ইউসুফপুর পশ্চিমপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী মোঃ শুকচান আলী বলেন, আমার ছেলে মোঃ শান্ত আলীর(২৬) সাথে চারঘাট পৌরসভার মুক্তারপুর এলাকার মৃত আব্দুল হানিফের মেয়ে(২০)এর সাথে ২০২২সালের ১৮ নভেম্বর বিবাহ হয়। পারিবারিক নানা কারণে মতের মিল না হওয়ায় আমার ছেলে ১৭ অক্টোবর ২০২৩ আইন সম্মতভাবে কোর্টে গিয়ে মেয়েকে তালাক দেয়। এরই পরিপেক্ষিতে গত ২৪ অক্টোবর মেয়ে ও মেয়ের ভাই সাদ্দাম হোসেন(৩৫)সহ ৬/৭ জন বাসায় এসে চিল্লাচিল্লি করতে থাকে। এক পর্যায়ে বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং তার সামনেই আমাদেরকে মারধর করে জোর করে আমার ঘরের ভিতর ঢুকে বাক্স ভেঙ্গে এক লক্ষ পাঁচ হাজার টাকা এবং দেড় ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। এ বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে ইউসুফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম মাখন বলেন, বিষয়টি আমি জানার পর ঘটনাস্থলে পৌছালে তাদেরকে মিমাংশায় বসার কথা বলি কিন্তু তাতে মেয়ে পক্ষের লোক রাজি না হয়ে শান্তর ঘরের বাক্স ভেঙ্গে জিনিসপত্র বের করে এবং সেখানে থাকা এলাকার এক জনের হাতে কামড় বসিয় জখম করে। তিনি আরও বলেন আমি এরকম বাজে লোক আমার জীবনে দেখিনি। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে তারা চলে যায়।

বিষয়টি জানতে সাদ্দামের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি আমার বোনকে কি কারনে তালাক দিয়েছে এবং বিষয়টি কথা বলে সামাধান করা যায় কিনা জানতে গিয়েছিলাম। টাকা পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কারের বিষয়ে তিনি বলেন আমি আমার বোনের শ্বশুর বাড়ির জিনিস ক্যানো নিব। বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

জানতে চাইলে চারঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ সিদ্দিকুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছায় তারপর মেয়ে পক্ষ চলে যায়। এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা