1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১০:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচনে মঞ্চ লুঙ্গী পড়া মানুষের জন্য বিশাল পথসভায় নেহাল পাটোয়ারী ভাইস চেয়ারম্যান থেকে চেয়ারম্যান হলেন ইউনুস, ভোলার ৩ উপজেলায় নির্বাচন সাতক্ষীরার ইছামতি নদীতে ভারতীয় নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার! রাজশাহীতে পুষ্টি বিষয়ক মাল্টি সেক্টরাল সমন্বিত কর্মশালা অনুষ্ঠিত রামপালে মেধাবী অন্বেষণ কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত রামপালে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবক যুবতীর আত্মহত্যা ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচন- সুখেদুঃখে মানুষের পাশে থাকবেন সংরক্ষীত সদস্য প্রার্থী নাসিমা লালমোহন উপজেলা নির্বাচন২৪ নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন বোরহানউদ্দিনে উপজেলা চেয়ারম্যান ‘‘জাফর উল্লাহ’, ভাইস চেয়ারম্যান ‘হীরা’’ উপজেলা নির্বাচনে নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন

মনপুরায় দিনে দুপুরে ব্যবসায়িকে বেঁধে ২ দোকান ডাকাতি, নগদ টাকা ও মালামাল লুট

যুগ্ম সম্পাদক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৭৮ বার পঠিত

মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধি \
ভোলার মনপুরায় দিনে দুপুরে ব্যবসায়িকে বেঁধে ২ টি দোকান ডাকাতি করে নিয়ে গেছে সংঘবদ্ধ ডাকাতদল। এসময় ডাকাতরা দোকান মালিক মোঃ সালামকে দেশিয় অস্ত্রের মুখে মোটা দড়ি দিয়ে বেঁধে নগদ টাকা ও মুদি মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। এছাড়াও অপর একটি দোকানের টিনের বেড়া কেটে ১৫ বস্তা ইলিশ জাল, কন্টেইনার ও মাছ ধরা বিভিন্ন সরঞ্জামাদি লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ সূত্রে জানা যায়। পরে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা এসে দড়ি দিয়ে বাঁধা অবস্থায় মুদি দোকান মালিক মোঃ সালামকে উদ্ধার করে। উক্ত ঘটনায় মনপুরা থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৭ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২ টায় ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের নতুন বাজার নামক স্থানে।

ডাকাতি হওয়া দোকানের মালিক মোঃ সালাম জানান, আমি যোহরের নামাজ পড়ে দুপুর ২ টার দিকে নতুন বাজারে অবস্থিত আমার দোকানে ঝাপ বন্ধ করে দরজা খোলা রেখে বসে ছিলাম। এসময় স্থানীয় বাসিন্দা লতিফ পাটওয়ারী (৫৫), তার ছেলে ইব্রাহিম (৩৭), ফরিদ পাটওয়ারী (৩০), শরীফ পাটওয়ারী (২৫), শাহাদাত (২২) ও স্থানীয় বাবুল (১৮) সহ সংঘবদ্ধ ডাকাত দল হাতে দা, লোহার শাবল ও লাঠিসোটা নিয়ে আমার দোকান ঘরে ঢোকে। আমার গলায় দা ধরে মুখ ও হাত পা বেঁধে ফেলে। এসময় তারা আমাকে বেদম মারধর করে। এবং আমার দোকানের ক্যাশবাক্সতে থাকা নগদ ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা, সোলারের ১ টি ব্যাটারী ও মুদি মালামাল লুটপাট করে নিয়ে চলে যায়। পরে বাজারের ব্যবসায়ীরা এসে আমার দোকানের মালামাল এলামেলো দেখায় আমার ঘরে ঢুকে আমাকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে।

এদিকে অপর একটি দোকানের মালামাল লুট হওয়ার পেছনে উক্ত সংঘবদ্ধ চক্রটির হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দোকানের মালিক মোঃ হারুন সারেং।

এব্যাপারে হারুন সারেং জানান, আমরা দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য বাড়িতে যাই। পরে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে দোকান লুট হওয়ার খবর শুনে নতুন বাজারে ছুটে আসি। এসে দেখি দোকানের পেছনের টিনের বেড়া কেটে আমার ১৫ বস্তা ইলিশ জাল, কন্টেইনার ও মাছধরার বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার মালামাল ডাকাতরা লুট করে নিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় আমি মনপুরা থানায় অভিযোগ করেছি।

এদিকে অভিযোগ পেয়ে উক্ত ঘটনায় মনপুরা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এব্যাপারে মনপুরা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জহিরুল ইসলাম জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা