1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৯:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচনে মঞ্চ লুঙ্গী পড়া মানুষের জন্য বিশাল পথসভায় নেহাল পাটোয়ারী ভাইস চেয়ারম্যান থেকে চেয়ারম্যান হলেন ইউনুস, ভোলার ৩ উপজেলায় নির্বাচন সাতক্ষীরার ইছামতি নদীতে ভারতীয় নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার! রাজশাহীতে পুষ্টি বিষয়ক মাল্টি সেক্টরাল সমন্বিত কর্মশালা অনুষ্ঠিত রামপালে মেধাবী অন্বেষণ কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত রামপালে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবক যুবতীর আত্মহত্যা ধলীগৌরনগর ইউপি নির্বাচন- সুখেদুঃখে মানুষের পাশে থাকবেন সংরক্ষীত সদস্য প্রার্থী নাসিমা লালমোহন উপজেলা নির্বাচন২৪ নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন বোরহানউদ্দিনে উপজেলা চেয়ারম্যান ‘‘জাফর উল্লাহ’, ভাইস চেয়ারম্যান ‘হীরা’’ উপজেলা নির্বাচনে নির্বাচিত হলে বদরপুরে সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করবো-প্রার্থী আকতার হোসেন

পবিপ্রবিতে ছাত্রলীগ সভাপতির সংবাদ সম্মেলন

উপকূল বার্তা ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৮ আগস্ট, ২০২৩
  • ২০৯ বার পঠিত

পটুয়াখালী: পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(পবিপ্রবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আরাফাত ইসলাম খান সাগরের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার(২৮আগস্ট) দুপুরে পবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, পবিপ্রবি শাখার সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আরাফাত ইসলাম খান সাগর লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এসময় সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান তারেকসহ শাখা ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরাফাত ইসলাম খান সাগর লিখিত বক্তব্যে বলেন, আপনারা অবহিত আছেন, গত ১৪ ই আগষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের এন্টোমোলোজি ডিপার্টমেন্টের প্রফেসর ডঃ হেমায়াত জাহানকে নিজ কক্ষে তালাবদ্ধ করা হয়েছে বলে সাদা দল একটি বিবৃতি দিয়েছে। এরপর ১৬ ই আগষ্ট পবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করেছে।দুঃখজনক ব্যাপার হলো, পরেরদিন প্রকাশিত নিউজে প্রফেসর ডঃ হেমায়াত জাহান আমাকে জড়িয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সম্পূর্ন মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।তার বক্তব্যে বলা হয়েছে, আমি তার চেম্বারে গিয়ে এগ্রিকালচার ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী সিনথী কানিজকে অবৈধভাবে পাশ করিয়ে দিতে বলি, এবং সে রাজি হয়নি এই ক্ষোভ থেকে আমি তার কক্ষে তালা দিতে পারি বলে অভিযোগ করেছেন।কিন্তু আপনারা শুনে অবাক হবেন, সাম্প্রতিক সময়ে সিনথী কানিজের কোনো পরীক্ষাই ছিলোনা। এবং সে রিপিট পরীক্ষায়ও অংশগ্রহণ করেছিলো আজ থেকে ২/৩ মাস পূর্বে। যার কোনো পরীক্ষা নাই, পাস ফেলের কোনো ব্যাপার নাই, তারসাথে আমাকে জড়িয়ে তাকে পাস করানোর জন্য আমি তার চেম্বারে গিয়েছি বলে যে কুরুচিপূর্ণ অভিযোগ সে করেছে তা কিভাবে সত্যি হতে পারে সেটা সকলের কাছে আমার প্রশ্ন রইলো! এছাড়া আমি কখনো ড. হেমায়াত জাহানের চেম্বারে যাইনি। সুতরাং প্রফেসর ড. হেমায়েত জাহান আমার বিরুদ্ধে যে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন এতালিয়োগ করেছে সাংবাদিকবৃন্দের মাধ্যমে আমি তার নিন্দা জানাই।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা