1. admin@upokulbarta.news : admin :
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন

কক্সবাজারে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত মেম্বারকে গণসংবর্ধনা

যুগ্ম সম্পাদক
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৩১ বার পঠিত

কক্সবাজার সদরের ঝিলংজার ৯ নং ওয়ার্ডে বিনা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত মেম্বার মো. শরীফ উদ্দীনকে নিয়ে বিজয়োল্লাস করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) বিকাল ৩টার দিকে খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে বিজয়ের আনন্দ মিছিল শুরু হয়। জনতার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে মিছিলটি পুরো এলাকা প্রদক্ষিণ করে। শেষে স্কুল প্রাঙ্গণে সমাবেশে মিলিত হয়। শরীফ মেম্বারকে নিয়ে এলাকাবাসীর বিজয়োল্লাস বাঁধভাঙা জোয়ারে পরিণত হয়। যেখানে শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকের সমাগম ঘটে।

টানা দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচিত মেম্বার মো. শরীফ উদ্দীন এলাকার মুরব্বিদের সঙ্গে নিয়ে বিজয় মিছিল যোগদান করেন। বিজয় মিছিল শেষে অনুষ্ঠিত সমাবেশে মো. শরীফ উদ্দীন বলেন, আমি নগন্য মানুষ। আপনারা আমাকে যে মর্যাদা ও সম্মান দিয়েছেন, তা চিরদিন স্মরণে রাখব। আপনাদের এই ঋণ শোধ করতে পারব না। সব শ্রেণির মানুষের নিকট আমি কৃতজ্ঞ। মেম্বার শরীফ বলেন, বিগত ৫ বছর মেম্বার ছিলাম। সেবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। আমার কারণে কেউ কষ্ট পায় নি। এলাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি সরকারি সুযোগ-সুবিধাসমূহ সবার ঘরে ঘরে পৌঁছিয়ে দিয়েছি। তার স্বীকৃতি আপনারা দিয়েছেন। আগামীতেও আপনাদের সেবক হিসেবে থাকতে চাই। দোয়া, পরামর্শ ও সহযোগিতা দিয়ে পাশে থাকবেন। এ সময় আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম, মনির আহমদ, নুরুল আলম প্রকাশ নুরু সওদাগর, নজির আহমদ কন্টাক্টর, এনামুল হক, সুজন বড়ুয়া, সুরত আলম সওদাগর, নুরুল হক সওদাগর, দেলোয়ার হোসেন, আল আমিন, মাস্টার আব্দুল্লাহ আল মোস্তফাসহ মান্যগন্য ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, আগামী ১১ নভেম্বর ঝিলংজার নির্বাচন। ৯ নং ওয়ার্ডে একজন প্রার্থী থাকলেও ২৫ অক্টোবর তিনি মনোয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

সে কারণে মো. শরীফ উদ্দীনকে ‘বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী’ ঘোষণা দেয় নির্বাচন অফিস। শরীফ মেম্বারই জেলার প্রথম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। গত বারের নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে মেম্বার হয়েছিলেন মো. শরীফ উদ্দীন। স্থানীয়রা বলছে, মো. শরীফ উদ্দীন এলাকায় প্রচুর উন্নয়ন কাজ করেছেন। সবার প্রয়োজনে ছুটে গেছেন। কারো সাথে ভেদাভেদ, দলাদলি করেন নি। কথা ও কাজে মিল রেখে চলেছেন। জনগণের সেবা ঠিক মতো দিয়েছেন, তার প্রতিদান হিসেবে কোন প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী হননি। সবাই মো. শরীফকে সমর্থন করেছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা