1. admin@upokulbarta.news : admin :
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মেঘনা নদীতে কর্ণফুলী-৩ লঞ্চে আগুন, আতঙ্কিত যাত্রীরা ভোলায় পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু ফকিরহাটের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে স্বপন দাশের প্রচার শুরু চরফ্যাশনে ভিকটিমকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান এর বিরুদ্ধে আদালতের আদেশ মানতে গড়িমসি করছেন খুলনা বিভাগীয় পরিবার পরিকল্পনা পরিচালক রবিউল আলম বাইউস্টে নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত Sustainability with Profitability is Possible-Rezaul Karim Chowdhury লালমোহনে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মারপিট আহত ১ ২০২৪-২৫ বাজেটে সব ধরনের তামাকপণ্যের কর ও মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন মোহনপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন

ভোলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৬০০ তে, মৃত্যু-৩

আশিকুর রহমান শান্ত, ভোলা প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৪ আগস্ট, ২০২৩
  • ১০৫ বার পঠিত

বাংলাদেশের উপকূলীয় জেলা ভোলায় দিনদিনই বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। একইসঙ্গে ধীরে ধীরে মৃত্যুও হার ও বাড়ছে। বুধবার (২ আগস্ট)রাতে চরফ্যাশনে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাজেরা বেগম (৩৪) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগেই প্রাণ হারান বলে জানা যায়। তাকে নিয়ে জেলায় এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলো ভোলা সদর উপজেলা, লালমোহন উপজেলা ও চরফ্যাশন উপজেলার।

ভোলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৩৭ জন। জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৬২২ জন। জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

তথ্যানুযায়ী, সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা সদর উপজেলায়। জেলা সদরের ২৫০ বেডের জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন ৩৩১ জন। অন্যদিকে আক্রান্তের হারে ২য় স্থানে রয়েছে বোরহানউদ্দিন উপজেলা। এ উপজেলায় আক্রান্ত ১০৪ জন। এছাড়া দৌলতখানে ৬২ জন, লালমোহনে ৫৭ জন, চরফ্যাশনে ৫২ জন ও তজুমদ্দিনে ১২ জন। ডেঙ্গু সংক্রমণ বাড়ায় বাড়ানো হয়েছে ডেঙ্গু ইউনিট ও বেডের সংখ্যা। জেলার ৬ হাসপাতালে ১৮০ এবং জেনারেল হাসপাতালে ৩০ বেড রয়েছে।

ভোলার সিভিল সার্জন ডা. কেএম শফিকুজ্জামান বলেন, ভোলায় ডেঙ্গু সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় প্রত্যেকটি হাসপাতালে শয্যা বাড়ানো হয়েছে। রোগীদের প্রয়োজনীয় সেবা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও সচেতনতা বাড়াতে স্বাস্থ্যশিক্ষা কার্যক্রম নিয়মিত চলছে।

তিনি বলেন, এসব কার্যক্রমের মধ্যেও মশক নিধন কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হবে। থাকতে হবে সচেতন।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা