1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া ঈদ উপলক্ষে রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করলো মাহাবুবা মতলেব তালুকদার ফাউন্ডেশন ৷ ভোলায় ঘুর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারের মাঝে ১৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করল কোস্ট ফাউন্ডেশন বর্তমান সরকার অসহায় দুস্থদের সরকার-মেয়র শেখ আ: রহমান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পরিকল্পনা আছে বটে, কিন্তু বাস্তবায়নে বাজেট নেই বাগেরহাটে কলেজ শিক্ষকদের বেসিক আইসিটি প্রশিক্ষণের সনদ প্রদান বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফকিরহাটের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানগণের শ্রদ্ধা নিবেদন সাতক্ষীরায় নাগরিক সংলাপ জলবায়ু সংকটে নিপতিত সাতক্ষীরায় বাসযোগ্য ও পরিকল্পিত নগর গড়ে তোলার আহবান মানারাতুল উম্মাহ মডেল মাদরাসার অভিভাবক সমাবেশ ও সবক অনুষ্ঠান মোহনপুরে পিজি সদস্যদের পোল্ট্রি খাদ্য ও উপকরন বিতরণ

ভোলায় ৭ ট্রলারডুবি ৬৭ জেলে উদ্ধার, নিখোঁজ ৬

আশিকুর রহমান শান্ত, ভোলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১ আগস্ট, ২০২৩
  • ৯২ বার পঠিত

ভোলার মেঘনা বঙ্গোপসাগর ও সাগর মোহনায় ঝড়ের কবলে পড়ে ৭টি ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৬৭ জেলে জীবিত উদ্ধার হলেও এখনো ৬ জেলে নিখোঁজ রয়েছে। মঙ্গলবার (১ আগষ্ট) সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত ঝড়ের কবলে পড়ে এ ঘটনা ঘটে।

সাত ট্রলারের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে ৩টি, সাগরের মোহনায় ২টি, দৌলতখান উপজেলার মেঘনায় একটি ও ভোলা সদর উপজেলার তুলাতলি পয়েন্টে মেঘনা নদীর মাঝের চর কাছে ১টি সহ মোট ৭টি ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে।

৭টি ট্রলারডুবির মধ্যে ৬টি বঙ্গোপসাগরের নিম্মচাপের প্রভাবে ডুবেছে। অপর একটি ডুবেছে কার্গো জাহাজের ধাক্কায়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বঙ্গোপসাগরে নিম্মচাপের প্রভাবে মনপুরায় মাছ ধরার ৫টি ট্রলার বঙ্গোপসাগর ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় ডুবে যায়। ৫ ট্রলারের মধ্যে ১টি মনপুরা উপজেলার হাজির হাট এলাকার মাইনুদ্দিন মাঝির, একটি হাজির হাট এলাকার হাফেজ মাঝির, একটি উত্তর সাকুচিয়ার জসিম মাঝির, একটি দক্ষিণ সাকুচিয়ার ইউনুস বলির ও অপরটি ১নং মনপুরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন হাওলাদারের।

এরমধ্যে আলাউদ্দিন চেয়ারম্যান, ইউনুস বলি ও মাইনুদ্দিন মাঝির ট্রলার বঙ্গোপসাগরে ডুবেছে। হাফেজ ও জসিম মাঝির ট্রলার ডুবেছে সাগরের মোহনায়। মাইনুদ্দিন মাঝির ২২ জেলে, হাফেজ মাঝির ৮ জেলে, জসিম মাঝির ৮ জেলে, ইউনুস বলির ১০ জেলের সবাই উদ্ধার হলেও ট্রলার উদ্ধার হয়নি। আর আলাউদ্দিন চেয়ারম্যানের ১০ জেলের মধ্যে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত ৪ জেলেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো তার ট্রলারের ৬ জেলে নিখোঁজ রয়েছে।

এছাড়াও দৌলতখান উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন মেঘনা নদীতে মো. মহিউদ্দিন মাঝির একটি ট্রলার পাঁচ জেলেসহ ডুবে গেছে। পরে স্থানীয় জেলেরা ট্রলারসহ সবাইকে উদ্ধার করেছে।

ভোলা সদর উপজেলার তুলাতলি মেঘনা নদীর মাঝের চর এলাকায় একটি কার্গো জাহাজের ধাক্কায় ১০ জেলেসহ মো. শাহাবুদ্দিন মাঝির একটি ট্রলার ডুবে গেছে। ১০ জেলের সবাই সাঁতরে অন্য ট্রলারে উঠে তীরে এসেছে ট্রলারটি মুহুর্তের মধ্যে ডুবে গেছে।

ছয় জেলে নিখোঁজ থাকা ট্রলারের মালিক চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন হাওলাদার জানান, মঙ্গলবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত ট্রলারের ৪ জন জেলেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। সাগর উত্তাল থাকায় নিখোঁজ ৬ জেলের সন্ধান পাইনি।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল ইসলাম কামরুল ও ইলিশা নৌ-থানার পুলিশ পরিদর্শক মো. আখতারুজ্জামান।

এ বিষয়ে মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম জহির সাংবাদিকদের জানান, মনপুরার জেলেদের ৫টি ট্রলার ডুবির ঘটনায় ৬৭ জেলে জীবিত উদ্ধার হলেও এখনো আলাউদ্দিন চেয়ারম্যানের ট্রলারের ৬ জেলে নিখোঁজ রয়েছে। তাদেরকে সাগরে খোঁজা হচ্ছে।

ইলিশা নৌ-থানার পুলিশ পরিদর্শক মো. আখতারুজ্জামান জানান, মেঘনায় দুইটি জেলে ট্রলারডুবির ঘটনা তিনি শুনেছেন। তবে এ ঘটনায় কোনো নিখোঁজ নেই।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা