1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৩:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া ঈদ উপলক্ষে রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করলো মাহাবুবা মতলেব তালুকদার ফাউন্ডেশন ৷ ভোলায় ঘুর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারের মাঝে ১৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করল কোস্ট ফাউন্ডেশন বর্তমান সরকার অসহায় দুস্থদের সরকার-মেয়র শেখ আ: রহমান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পরিকল্পনা আছে বটে, কিন্তু বাস্তবায়নে বাজেট নেই বাগেরহাটে কলেজ শিক্ষকদের বেসিক আইসিটি প্রশিক্ষণের সনদ প্রদান বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফকিরহাটের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানগণের শ্রদ্ধা নিবেদন সাতক্ষীরায় নাগরিক সংলাপ জলবায়ু সংকটে নিপতিত সাতক্ষীরায় বাসযোগ্য ও পরিকল্পিত নগর গড়ে তোলার আহবান মানারাতুল উম্মাহ মডেল মাদরাসার অভিভাবক সমাবেশ ও সবক অনুষ্ঠান মোহনপুরে পিজি সদস্যদের পোল্ট্রি খাদ্য ও উপকরন বিতরণ

লালমোহনে সাংবাদিক হত্যাচেষ্টা মামলার আসামী দুই সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেফতার

সম্পাদক
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৮ জুলাই, ২০২৩
  • ১১৯ বার পঠিত

ভোলার চরফ্যাশনের সাংবাদিক তৈয়্যবুর রহমানকে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা মামলায় দুই সাবেক চেয়ারম্যানসহ ৪ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। লালমোহন থানায় মামলা হওয়ার একদিন পর বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) রাত ৮ টার দিকে লালমোহন থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন লালমোহন চরভূতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মো. হোসেন হাওলাদার, তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রিয়াদ হোসেন হান্নান। অপর দুজন হলেন লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের লোকমান হোসেন ও রমাগঞ্জ ইউনিয়নের আজিজ। তাদের শুক্রবার ভোলা কোর্ট আদালতে পাঠানো হয়েছে।
গ্রেফতার হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোলা পৌর শহর এলাকা থেকে আসামি রিয়াদ হোসেন (হান্নান) ও হোসেন হাওলাদার সহ ৪ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে ।
উল্লেখ্য, বুধবার ২৫ জুলাই রাত ১০ টার দিকে চরফ্যাশন উপজেলার সাংবাদিক তৈয়্যবুর রহমান লালমোহন আসার পথে ফুলবাগিচা রাস্তায় এই দুই চেয়ারম্যানসহ ১৬ জন তাকে পথরোধ করে অতর্কিত আক্রমণ করেন বলে লালমোহন থানায় মামলা করেন তৈয়্যবুর রহমান। মামলায় উল্লেখ করা হয়, দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র সস্ত্র দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি মারতে থাকে আসামীরা। তৈয়্যবুর রহমান নিজেকে বাঁচাবার চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা তার ডান হাতের সিনার নিচে পিঠে চাপাতি দিয়ে একটি কোপ দেয়। পরে সে মাটিতে পড়ে গেলে আসামীরা তার মুখ থেকে তিনটি দাঁত উগলে ফেলে মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়।
স্থানীয় লোকজন তৈয়্যবুর রহমানকে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় উদ্ধার করে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় বুধবার তৈয়্যবুর রহমান বাদী হয়ে দুই সাবেক চেয়ারম্যানসহ ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১০ জনের নামে লালমোহন থানায় মামলাটি দায়ের করেন।
আহত সাংবাদিক তৈয়্যবুর রহমান উন্নত চিকিৎসার জন্য বর্তমানে ঢাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তিনি বর্তমানে দি বাংলাদেশ টুডের সংবাদদাতা হিসেবে কর্মরত রয়েছেন বলে জানান।
লালমোহন থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, সাংবাদিক তৈয়্যবুর রহমান বাদী হয়ে মামলা করায় গোপন সূত্রের মাধ্যমে দুই সাবেক চেয়ারম্যানকে ভোলা থেকে ও অপর দুই আসামীকে লালমোহনের বিভিন্ন জায়গা থেকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে পূর্ব থেকে আরো একাধিক মামলা রয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা