1. admin@upokulbarta.news : admin :
  2. bangladesh@upokulbarta.news : যুগ্ম সম্পাদক : যুগ্ম সম্পাদক
  3. bholasadar@upokulbarta.news : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নানা আয়োজনে পলিত হচ্ছে দৈনিক পত্রদূত সম্পাদক স.ম আলাউদ্দীন মৃত্যুবার্ষিকী সাতক্ষীরায় ২৪১ জনের মাঝে ১৭ লাখ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ কুমিল্লায় দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া ঈদ উপলক্ষে রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করলো মাহাবুবা মতলেব তালুকদার ফাউন্ডেশন ৷ ভোলায় ঘুর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারের মাঝে ১৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করল কোস্ট ফাউন্ডেশন মোংলায় দিন দুপুরে দোকান ঘর ভাংচুর ও জবর দখলের চেষ্টা বর্তমান সরকার অসহায় দুস্থদের সরকার-মেয়র শেখ আ: রহমান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পরিকল্পনা আছে বটে, কিন্তু বাস্তবায়নে বাজেট নেই বাগেরহাটে কলেজ শিক্ষকদের বেসিক আইসিটি প্রশিক্ষণের সনদ প্রদান বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফকিরহাটের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানগণের শ্রদ্ধা নিবেদন

বন্দরের শীর্ষ সন্ত্রাসী ক্যাপ রোমানের বাহিনী এখনো সক্রিয় শীর্ষ সন্ত্রাসী ক্যাপ রোমানের মৃত্যুতে এলাকায় ফিরে এসেছে স্বস্তি

সহকারী সম্পাদকঃ
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৩ জুন, ২০২৩
  • ১১৮ বার পঠিত
স্টাফ রিপোর্টারঃ
বন্দরের শীর্ষ  সন্ত্রাসী ক্যাপ রোমান, ব্ল্যাক জনি, ডালিম, রমজান বাহিনীর কাছে জিম্মি বন্দর দক্ষিণাঞ্চলের লোকজন।
বন্দরের দক্ষিনাঞ্চল খ্যাত  কলাগাছিয়া ইউনিয়ন হতে মদনগঞ্জ কয়লা ঘাট পর্যন্ত এলাকা অপরাধ জগতের আখড়া পরিনত হয়েছে। ভাইজানের নাম ব্যবহার করে অপরাধ জগতের সম্রাট ক্যাপ রোমান  ব্লাক জনি, ডালিম, রমজান ওরফে চুক্কা রমজান বাহিনী সন্ত্রাসী কর্মকান্ডক চালিয়ে যাচ্ছে দেদারসে। তাদের পেছনে শেল্টারদাতা রয়েছে জনপ্রতিনিধিসহ উপর মহলের হাত।
তবে এ চক্রটি মূলত ভাইজানের নাম ব্যবহার করে সকল অপকর্ম করে। চক্রটির বিরুদ্ধে প্রশাসনিক কঠোর অবস্থানের কারণে ক্যাপ রোমান,  ব্লাক জনিসহ তাদের একাধিক বার গ্রেফতার পূর্বক মামলা দিয়ে আদালতে পাঠালেও আইনের ফাঁক -ফোকড় দিয়ে সহজে জামিনে বের হয়ে আসে। শুরু করে পুনরায় কর্মকান্ড। চক্রটির মূল হোতা ক্যাপ রোমান।
 যার বিরুদ্ধে হত্যা, মাদক, নৌ- ডাকাতি, তেল চুরিসহ বিভিন্ন সমাজ বিরোধী কর্মকান্ডে প্রায় ডজন খানিকের বেশি মামলা রয়েছে।  ক্যাপ রোমান  জেল হাজতে থাকলে যা, আর বাহিরে থাকলে একই বলে জানান স্থানীয় সচেতন মহল। তিন নদীর মোহনা নিয়ন্ত্রণ,  মাদক সম্রাট, তেল চোরসহ নদী পথে ডাকাতি করার জন্য রয়েছে একাধিক গ্রুপ। প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের পরও তাদের রোধ করা কষ্টকর হয়ে গিয়েছিল।  অবৈধ ভাবে অর্থ উর্পাজনের প্রলোভনে একের পর ঘটনার জন্ম দিয়েই চলছিল। যার ফলসূতিতে গত শুক্রবার রাতে প্রকাশ্য কুপিয়ে হত্যা করেছে শীর্ষ সন্ত্রাসী ক্যাপ রোমানকে ।
যার বিরুদ্ধে হত্যা, মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে প্রায় ডজন খানিক মামলা রয়েছে।
রীতিমত ধরাকে সরা করা যাদের কাজ হয়ে পড়েছে। কতিপয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কিছু অসাধু কর্তার সাথে সখ্যতার মাধ্যমে সকল প্রকার অপকর্ম করে বহাল তবিয়তে রাজত্ব করছে। বিপাকে পড়েছে এলাকাবাসী। পান থেকে চুন কষলেই এলাকায় অরজগতা করে এলাকাবাসীকে নীরব থাকতে বাধ্য করে বলে গোয়েন্দা সংস্থা ( ডিএসপি)র’ রির্পোটে প্রকাশ করেছে।  বন্দরের দক্ষিনাঞ্চল সন্ত্রাস মুক্ত করতে যাদের  কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।
তথ্য সূত্রে  বন্দরের কলাগাছিয়া ৩ নদীর মোহনা থেকে মদনগঞ্জ কয়লা ঘাট পর্যন্ত নদী পথে সকল প্রকার অপকর্মের জন্য ২০/২৫ জনের একটি সিন্ডিকেট রয়েছে। নদী পথে রাত হলেই তাদের দেখা মিলে বিভিন্ন রুপে। একাধিক গ্রুপ ট্রলার যোগে নদী পথে শুরু করে অপকর্ম। যাদের নের্তৃত্ব দিয়ে থাকেন ক্যাপ রোমান ও ব্লাক জনি।
বিভিন্ন তেলবাহী জাহাজ হতে অবৈধভাবে তেল চুরি, ডাকতি সহ মাদকের চালান পাচার করার অভিযোগ রয়েছে।
এলাকাবাসী বলেন শীর্ষ সন্ত্রাসী ক্যাপ রোমানের অত্যাচারে পুরো এলাকাটি জিম্মি ছিল এই বাহিনী শত পরিবারকে নিঃস্ব করে দিয়েছে আল্লাহ কোনদিনই জুলুম মেনে নেয় না। তাই আল্লাহ ন্যায় বিচার করেছে এলাকার মানুষ এখন কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিড়ে পেয়েছে।
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা